Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ম্যাচ ধরে নিয়ে মাহি-মহড়া

বিরাট কোহালির দল যখন পুণেতে অস্ট্রেলিয়াকে চেপে ধরেছে, তখন ইডেনে মহড়ায় মগ্ন মাহি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ ০৩:৫৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
ইডেনে ঝাড়খণ্ড অধিনায়ক। প্রথম দিনেই পুরোদমে অনুশীলন শুরু মহেন্দ্র সিংহ ধোনির। ছবি: সুদীপ্ত ভৌমিক।

ইডেনে ঝাড়খণ্ড অধিনায়ক। প্রথম দিনেই পুরোদমে অনুশীলন শুরু মহেন্দ্র সিংহ ধোনির। ছবি: সুদীপ্ত ভৌমিক।

Popup Close

বিরাট কোহালির দল যখন পুণেতে অস্ট্রেলিয়াকে চেপে ধরেছে, তখন ইডেনে মহড়ায় মগ্ন মাহি। বিজয় হাজারে ট্রফিতে খেলতে ট্রেনে চেপে কলকাতায় আসা মহেন্দ্র সিংহ ধোনি বৃহস্পতিবার দুপুরে নেমে পড়লেন অনুশীলনে। আর সেই অনুশীলনের তীব্রতা দেখে কে বলবে, তিনি ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে নামছেন। দেখে মনে হবে যেন ইডেনে আন্তর্জাতিক ম্যাচের মহড়ায় মাহি।

বেশ কয়েক দিন ধরেই ব্যাট হাতে আগের মতো সেই ঝড় তুলতে পারছেন না ধোনি। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক একদিনের সিরিজে একটি সেঞ্চুরি পেলেও আর তেমন কোনও বড় রান নেই। ইডেনের মহড়ায় দেখে মনে হল, নিজের পুরনো ছন্দ খুঁজে পেতে মরিয়া ধোনি। প্রথমে নেটে উদয় হলেন বোলারের ভূমিকায়। এবং, পুণের ঘূর্ণির জেরে কি না কে জানে, দেখা গেল স্পিনার ধোনিকে। অথচ, এতকাল নেটে তাঁকে পেস বোলিংই করতে দেখা যেত।

ঝাড়খণ্ডের জুনিয়র ক্রিকেটারদের পরামর্শ দেওয়াও চলছিল এর পাশাপাশি। এর পর সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। যা দেখার জন্য ইডেনে ক্লাব হাউজের আপার টিয়ারে ভিড় জমিয়েছিলেন বেশ কয়েক জন ক্রিকেটভক্ত। তাঁর সেই সেনাদের পোশাকের আদলে তৈরি কিটব্যাগ থেকে প্যাড-গ্লাভস বার করে ফেললেন। ক্লাব হাউজের ওপরে দর্শকেরা হাততালি দিয়ে উঠলেন।

Advertisement

আরও পড়ুন: পিচ মোটেই খলনায়ক নয়, বুঝিয়ে দিলেন উমেশ

প্রথমে পেসারদের নেটে ঢুকলেন। স্টান্স নেওয়ার আগে বোলারকে ডেকে জিজ্ঞেস করলেন, তোমার ফিল্ডিং কী? সেটা দেখে আরও নিশ্চিত হওয়া গেল অনুশীলনে কোনও ফাঁক রাখতে চান না। ম্যাচে খেলতে হবে ফিল্ডিং অনুযায়ী। তাই সে ভাবেই তিনি নিজেকে তৈরি করতে চান। ধোনির ব্যাটিং অনুশীলনেও দেখা গেল অভিনব কায়দা। এক সতীর্থের সঙ্গে পার্টনারশিপ ব্যাটিংয়ের কায়দায় অনুশীলন করলেন। দশটি করে বল খেলছিলেন এক এক জনে। এ ভাবে পেসারদের বিরুদ্ধে ছয় রাউন্ড খেললেন ধোনি। তার পর গেলেন পাশের স্পিনারদের নেটে। সেখানেও চলল দশটি করে বল খেলা। মোটামুটি ১০০ বলের মহড়া।

পুণে ফ্র্যাঞ্চাইজি থেকে মাত্র ক’দিন আগেই অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ধোনিকে। তার জন্য জনপ্রিয়তায় ভাঁটা পড়ার কোনও লক্ষণ নেই। ইডেনে থেকে বেরনোর সময়েও ভিড় করে দাঁড়িয়ে ভক্তরা। মোবাইল ক্যামেরায় তাঁরা ছবি তুলে রাখলেন। উঠল ‘ধোনি ধোনি’ জয়ধ্বনিও। বিজয় হাজারে ট্রফিতে ঝাড়খণ্ডকে নেতৃত্ব দেবেন ধোনি। ইডেনের আবহ দেখে মনে হচ্ছে, পুণের মতো এখানেও আন্তর্জাতিক ম্যাচের ধ্বনি।

বিজয় হাজারে ট্রফিতে কলকাতায় ছ’টি ম্যাচ খেলবেন ধোনি। এই ম্যাচগুলি ইডেন, সল্টলেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠ ও কল্যাণীতে আছে। একটা সংশয় তৈরি হয়েছিল ধোনি যেহেতু খেলবেন, ঝাড়খণ্ডের সূচিতে কোনও পরিবর্তন হবে কি না। তবে বৃহস্পতিবার সিএবি থেকে জানা গেল, ধোনির দল থেকে সূচি পরিবর্তনের কোনও আর্জি আসেনি। তাই কল্যাণীতে ধোনি খেলতে যাচ্ছেন ধরে নিয়ে পুলিশকে খবর পাঠিয়ে দিয়েছে সিএবি। ধোনিকে দেখে মনে হচ্ছে, তিনি তরুণ বয়সের মতোই যে কোনও জায়গায় খেলতে প্রস্তুত।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement