×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

ছিটকে গেলেন শীর্ষ বাছাই ওসাকা, সেরিনার পথের কাঁটা সেই চোট

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৪:১৯
হতাশ: যুক্তরাষ্ট্র ওপেন থেকে বিদায় নিলেন মেয়েদের শীর্ষবাছাই নেয়োমি ওসাকা।—ছবি এএফপি।

হতাশ: যুক্তরাষ্ট্র ওপেন থেকে বিদায় নিলেন মেয়েদের শীর্ষবাছাই নেয়োমি ওসাকা।—ছবি এএফপি।

পুরুষদের সিঙ্গলসে এক নম্বর নোভাক জোকোভিচ ছিটকে যাওয়ার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে মেয়েদের শীর্ষবাছাই নেয়োমি ওসাকাও বিদায় নিলেন। চতুর্থ রাউন্ডে বিশ্বের এক নম্বর জাপানি তারকা ৫-৭, ৪-৬ হারলেন ১৩ নম্বর বাছাই বেলিন্দা বেনচিচের বিরুদ্ধে।

বাঁ-হাটুতে চোটের সমস্যা নিয়েই গত বারের চ্যাম্পিয়ন এ বার নেমেছিলেন যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে। সঙ্গে টানা র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রাখার চাপও ছিল। তা ছাড়া এর আগে চলতি বছরে দু’বার ওসাকাকে হারিয়েছিলেন সুইস তারকা বেনচিচ। ২২ বছরের বেনচিচকে বলা হয় মার্টিনা হিঙ্গিসের উত্তরসূরি। ১৭ বছর বয়েসে ২০১৪ যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিলেন তিনি। তার পরে অবশ্য চোটের সমস্যায় ভুগছিলেন। পাঁচ বছর পরে আবার তাঁর সামনে শেষ আটের চ্যালেঞ্জ। কোয়ার্টার ফাইনালে তাঁকে খেলতে হবে ২৩ নম্বর বাছাই ডোনা ভেকিচের বিরুদ্ধে।

পেত্রা মার্তিচকে স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেলেন সেরিনা উইলিয়ামসও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শারীরিক ধকল সামলে তিনি মার্গারেট কোর্টের ২৪টি কেরিয়ার গ্র্যান্ড স্ল্যাম রেকর্ড

Advertisement

স্পর্শ করতে পারবেন কিনা সেই আশঙ্কায় তাঁর ভক্তরা। রবিবার ক্রোয়েশিয়ার মার্তিচের বিরুদ্ধে সেরিনা ৬-৩, ৬-৪ ফলে ম্যাচ জিতলেন তিনি। কিন্তু তাঁর ভক্তদের কাছে উদ্বেগের কারণ হয়ে রইল দ্বিতীয় সেটের মাঝে গোড়ালিতে চোটের কারণে মাঠের ধারে অনেকটা সময় নিয়ে শুশ্রূষার ছবি। চলতি মরসুমে সেরিনার আসল প্রতিপক্ষ তো হয়ে দাঁড়িয়েছে ঘনঘন চোট এবং শারীরিক অসুস্থতা।

অন্তত এ বারের বেশ কিছু ঘটনা তো ৩৭ বছরের টেনিস তারকার সামগ্রিক ফিটনেসের বিরুদ্ধেই যাচ্ছে। বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে ক্যারোলিনা প্লিসকোভার বিরুদ্ধে ৫-১ গেমে এগিয়ে থাকার সময় বাঁ পায়ের গোড়ালিতে চোট পান তিনি। আর ফিরে আসতে পারেননি। মার্চ মাসে ইন্ডিয়ান ওয়েলস টেনিসেও সেই এক ছবি। আর গত মাসে টরন্টো মাস্টার্স ফাইনালে শ্বাসকষ্টের কারণে সেরিনা ম্যাচ ছেড়ে দিতে বাধ্য হন। এ বারও কি সেই ছবি ফিরতে চলেছে?

রবিবার ম্যাচের পরে তাঁর দিকে উড়ে আসা এমনই প্রশ্নের মুখে সেরিনার জবাব, ‘‘ভলি মারতে গিয়ে কী ভাবে যে গোড়ালি মুচকে গেল, তা আমার কাছেও রহস্য। নিঃসন্দেহে ব্যাপারটা সুখকর নয়।’’ তবে ঘরের মাঠে বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম আসরে তিনি যে ভক্তদের হতাশ করতে চান না, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন সেরিনা।

Advertisement