Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

নির্বাচককে ‘বাউন্সার’ দিয়ে বিদায় নেহরার

নেহরা পরিষ্কার বলছেন, তাঁর ভাগ্য ভাল বলেই তিনি দিল্লিতে ঘরের মাঠে জীবনের শেষ ম্যাচটা খেলতে পারলেন। ‘‘আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৩ নভেম্বর ২০১৭ ০৩:৪৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
ফেয়ারওয়েল: ঘরের মাঠ ফিরোজ শা কোটলায় ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচ খেললেন আশিস নেহরা। তাঁকে মাঝখানে রেখে গ্রুপ ছবি তুলে রাখল দল। বুধবার নয়াদিল্লিতে। —ফাইল চিত্র।

ফেয়ারওয়েল: ঘরের মাঠ ফিরোজ শা কোটলায় ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচ খেললেন আশিস নেহরা। তাঁকে মাঝখানে রেখে গ্রুপ ছবি তুলে রাখল দল। বুধবার নয়াদিল্লিতে। —ফাইল চিত্র।

Popup Close

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বুধবারের টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তাঁর শেষ ডেলিভারিটা করেননি আশিস নেহরা। একটা ‘বাউন্সার’ তুলে রেখেছিলেন ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনের জন্য। যে ‘বাউন্সারের’ লক্ষ্য ছিল জাতীয় নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান এম এস কে প্রসাদ।

নেহরার বিদায়ী ম্যাচ নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয় যখন প্রসাদ মন্তব্য করেন, নেহরা দিল্লিতে খেলবেন কি না, ঠিক নেই। নির্বাচক প্রধান এও বলেছিলেন, নেহরা-কে তাঁরা শুধু নিউজিল্যান্ড সিরিজের জন্যই ভাবছেন।

অর্থাৎ ইঙ্গিত ছিল, নিউজিল্যান্ড সিরিজই মোটামুটি শেষ আন্তর্জাতিক সিরিজ হতে চলেছে নেহরার। তা তিনি অবসর নিন বা না-ই নিন। প্রসাদের বক্তব্য নিয়ে ম্যাচের পরে নেহরাকে প্রশ্ন করা হলে এই বাঁ-হাতি পেসার বলেন, ‘‘নির্বাচক প্রধানের সঙ্গে আমার কোনও কথা হয়নি। আপনাদের কাছ থেকে ওর বক্তব্য শুনেছি। আমি শুধু এটা বলতে চাই, আমি যখন খেলা শুরু করেছিলাম তখনও নির্বাচকদের অনুমতি নিইনি। আবার যখন খেলা ছাড়লাম, তখনও নির্বাচকদের অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন বোধ করিনি।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: কোহালিদের ম্যাচে পাঁচ কোটির বিমা

তা হলে আপনার ‘ফেয়ারওয়েল ম্যাচ’ কী ভাবে হল? নেহরা বলছেন, ‘‘আমি কখনও ফেয়ারওয়েল ম্যাচের কথা বলিনি। ভারতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পরে আমি রাঁচীতে পৌঁছেই বিরাটের সঙ্গে কথা বলি। ওকে আমার অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা বলি। শুনে বিরাট প্রথমেই বলেছিল, ‘তুমি ঠিক করে ফেলেছ? তুমি আইপিএল খেলতে পারো। এমনকী, কোচ কাম প্লেয়ার হিসেবেও খেলতে পারো।’ আমি ওকে বলে দিই, না। আমি পুরোপুরি অবসর নেব। কোনও নির্বাচক নয়, আমি বিরাট এবং কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছিলাম।’’

নেহরা পরিষ্কার বলছেন, তাঁর ভাগ্য ভাল বলেই তিনি দিল্লিতে ঘরের মাঠে জীবনের শেষ ম্যাচটা খেলতে পারলেন। ‘‘আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি। আমার ভাগ্য ভাল বলেই এটা ঘটল। আমি কোনও রকমের ফেয়ারওয়েল ম্যাচ চাইনি। হয়তো এ ভাবেই আমার সারা জীবনের পরিশ্রমের স্বীকৃতি দিলেন ঈশ্বর।’’

অবসর নেওয়া নিয়ে কোনও আক্ষেপ নেই নেহরার। বরং এই বর্ষীয়ান পেসার মনে করেন, ঠিক সময়েই সরে গেলেন তিনি। ‘‘আমার মনে হচ্ছে ভুবনেশ্বর এখন তৈরি হয়ে গিয়েছে। এর আগে আমি আর বুমরা যখন খেলতাম, তৃতীয় পেসার হিসেবে দলে থাকত ভুবি। এ বারের আইপিএলের পরে মনে হল, ভুবি অনেক উন্নতি করেছে। ওর জায়গা আটকে রাখা আর ঠিক নয়।’’

বুধবার ঘরের মাঠ ফিরোজ শা কোটলা প্রদক্ষিণ করার সময় বিরাট ও শিখর ধবন কাঁধে তুলে নিয়ে নেহরাকে রাজকীয় বিদায় জানান।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement