×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৯ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

ইটালীয় ওপেনের ফাইনালে দ্বৈরথ নোভাক-রাফার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৬ মে ২০২১ ০৭:৪৮
যুযুধান: ফাইনালে ওঠার পরে নাদাল ও জোকোভিচ। শনিবার।

যুযুধান: ফাইনালে ওঠার পরে নাদাল ও জোকোভিচ। শনিবার।
রয়টার্স

ফরাসি ওপেনের আগে টেনিসবিশ্বের দুই মহাতারকা একে অপরকে পরীক্ষা করে নেওয়ার দারুণ সুযোগ পেয়ে গেলেন। চলতি ইটালীয় ওপেন টেনিসের ফাইনালে আজ, রবিবার রাফায়েল নাদালের বিরুদ্ধে খেলবেন নোভাক জোকোভিচ।

ইটালীয় ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে শুক্রবার আলেকজান্ডার জ়েরেভকে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিয়েছিলেন নাদাল। শনিবারও তাঁকে পাওয়া গেল বিধ্বংসী মেজাজে। সেমিফাইনালে স্পেনীয় তারকা সহজেই হারালেন রেইলি ওপেলকা-কে। ফল ৬-৪, ৬-৪। এ দিন যুক্তরাষ্ট্রের বিগ সার্ভার বিশেষ কিছু সমস্যায় ফেলতে পারেননি রাফাকে। রোমে এই নিয়ে মোট ১২ বার ফাইনালে খেলবেন ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামে জয়ী তারকা।

পিছিয়ে ছিলেন না বিশ্বের এক নম্বর তারকা জোকোভিচও। শনিবার প্রথমে গ্রিসের তারকা স্টেফানোস চিচিপাসকে ৪-৬, ৭-৫, ৭-৫ হারিয়ে তিনি আদায় করে নেন সেমিফাইনালের ছাড়পত্র। শারীরিক ধকলকে উপেক্ষা করে শেষ চারের দ্বৈরথে উড়িয়ে দিলেন ইটালির লোরেঞ্জো সোনেগোকে। নোভাকের পক্ষে ম্যাচের ফল ৬-৩, ৬-৭, ৬-২। ম্যাচ গড়ায় ২ ঘণ্টা ৪৪ মিনিট।

Advertisement

ক্লে-কোর্টে নিজের পাঁচশোতম ম্যাচ খেলতে নামা নাদাল ছিলেন রীতিমতো আক্রমণাত্মক মেজাজে। ১ ঘণ্টা ৩২ মিনিটের মধ্যে ম্যাচ শেষ করে দিয়ে বিশ্বের দুই নম্বর তারকা বলেছেন, “এই ম্যাচ থেকে প্রাপ্তি একটাই। ফাইনাল খেলতে নামার আগে আত্মবিশ্বাস পুরো মাত্রায় ফিরে এসেছে।” মন্টে কার্লো এবং মাদ্রিদ ওপেনে ব্যর্থ নাদালের কাছে ইটালীয় ওপেনের ফাইনালে ওঠা যে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ, তা-ও গোপন করেননি তিনি। রাফা বলেছেন, “আগের দুই প্রতিযোগিতায় যে ভাবে খেলতে চেয়েছিলাম, সেটা এখানেও বজায় ছিল। অবশেষে তা কাজে দিয়েছে। এই জয় উপভোগ করছি।”

ম্যাচে ১১টি ‘এস’ সার্ভিস করেন নাদাল। তার সামনে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেননি ওপেলকা। নিজের সেরা অস্ত্র জোরালো সার্ভিস কোনও কাজেই আসেনি।

শনিবারের শুরুটা জোকোভিচের কাছেও খুব সুবিধাজনক ছিল না। স্টেফানোস চিচিপাসের সঙ্গে তাঁকে তিন সেট লড়তে হয়। ম্যাচ শুরু হয়েছিল শুক্রবার। কিন্তু বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। সেই সময় গ্রিসের তরুণ ৬-৪, ২-১ ফলে এগিয়ে ছিলেন। সেখান থেকে নোভাক ম্যাচ বার করলেন ৪-৬, ৭-৫, ৭-৫ সেটে। দু’দিন মিলিয়ে খেলা চলল ৩ ঘণ্টা
১৬ মিনিট।

নির্ণায়ক সেটে দু’বার চিচিপাসের ব্রেক পয়েন্টের সামনে থেকে পরিস্থিতি সামলান নোভাক। ম্যাচের পরে যা নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘মনে হল যেন চিচিপাসের সঙ্গে আমি দু’টো ম্যাচ খেললাম। গতকাল ও-ই আমার চেয়ে অনেক ভাল খেলেছিল। আমাদের মধ্যে রীতিমতো স্নায়ুর যুদ্ধ চলে। মাথা ঠান্ডা রেখে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ওর সার্ভিস ভেঙে জিতলাম। মনে হয়, এটাই এ’মরসুমে আমার কঠিনতম ম্যাচ ছিল।’’

ইটালীয় ওপেনে মেয়েদের ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন ক্যারোলিনা প্লিসকোভা ও ইগা শিয়নটেক। প্রথম সেমিফাইনালে প্লিসকোভা ৬-১, ৩-৬, ৬-২ হারান পেত্রা মার্তিচকে। সেমিফাইনালের অন্য ম্যাচে শিয়নটেক জেতেন কোকো গফের বিরুদ্ধে। ফল ৭-৬, ৬-৩।

Advertisement