Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ অক্টোবর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অশ্বিন-উবাচ

নিজের বোলিং নিয়ে নিজেই তুমুল সমালোচনা করেছি। তা থেকে মনে যে প্রশ্নগুলো ভেসে উঠেছে, ভরত অরুণ ও রবি শাস্ত্রীর কাছ থেকে তার উত্তর বার করে নিয়েছ

১৩ অগস্ট ২০১৫ ০৩:২৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

নিজের বোলিং নিয়ে নিজেই তুমুল সমালোচনা করেছি। তা থেকে মনে যে প্রশ্নগুলো ভেসে উঠেছে, ভরত অরুণ ও রবি শাস্ত্রীর কাছ থেকে তার উত্তর বার করে নিয়েছি একটা একটা করে। এই সবের পরই নিজেকে নতুন করে আবিষ্কার করতে পেরেছি। জীবনে কোনও কিছুই বোধহয় স্থির নয়। সবসময়ই এগিয়ে যেতে হয়, উন্নতি করতে হয়।

পরপর এমন ভাল বোলিং করাটাই আমার কাছে সবচেয়ে আনন্দের ব্যাপার। তবে আমার কাছে খেলাটা কতটা বদলে দিতে পারছি, এটাই বড় ব্যাপার। ব্যক্তিগত মাইলস্টোন নিয়ে ভাবি না। উন্নতি তো করতেই হবে। তার রাস্তাটা নিখুঁত থাকলেই হল।

দেশে না বিদেশে ভাল পারফরম্যান্স, সে সব নিয়ে বেশি ভাবি না। দলের জন্য ভাল খেলতে হবে, নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে, এটাই আসল ব্যাপার। টস হেরে শ্রীলঙ্কার মতো কন্ডিশনে একটা দলকে এক দিনে অল আউট করে দেওয়াটা অসাধারণ পারফরম্যান্স।

Advertisement

রবি শাস্ত্রী পুরো দলের উপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছেন। অস্ট্রেলিয়ায় যখন খেলছিলাম না, তখন উনি বুঝিয়েছিলেন, কেন খেলছি না। উনি যে ভাবে বোঝালেন, ওঁর সঙ্গেও অস্ট্রেলিয়াতে এমনই হয়েছিল এবং কেন হয়েছিল, তাতেই ব্যাপারটা আমার স্পষ্ট হয়ে যায়। ওঁর সঙ্গে ক্রিকেট নিয়ে আলোচনায় বসলে অনেক কিছু বোঝার জন্য অনেক রাস্তা খুলে যায়। ওখান থেকেই উন্নতি শুরু হয়ে যায়।

কুমার সঙ্গকারা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথেউজের মতো ব্যাটসম্যানদের অসাধারণ ক্যাচ নিয়ে আউট করাটা বড় ব্যাপার নয় কি ? এ জন্য ক্যাচ পড়লেও মেনে নিতে হয়। যেখানে জানি, কারও চেষ্টায় ত্রুটি নেই, সেখানে ক্যাচ পড়া নিয়ে আফসোস করার প্রশ্নই নেই।

পিচে তেমন গতি, বাউন্স নেই বোধহয়। আজ সকালেও তেমন ভাল অবস্থা ছিল না। বল নড়াচড়া করছিল না। যত ম্যাচ এগোবে, তত আরও গতি কমবে, উইকেট নিতে আরও কালঘাম ছুটে যাবে। তাই আমাদের ভাল ব্যাট করতে হবে। তার পর সেখান থেকে কোথায় যাওয়া যায় দেখি।


টুইটারে অনিল কুম্বলে

অসাধারণ বোলিং অশ্বিন। দুর্দান্ত লড়াই, লাইন ও লেংথ।

ভারতকে চালকের আসনে বসিয়ে দিলে।

মাইলফলক

• বিদেশের মাটিতে অশ্বিনের সেরা পারফরম্যান্স। টেস্ট ক্রিকেটে তৃতীয় সেরা।



• বিদেশে প্রথমে বল করে প্রথম ইনিংসে কোনও ভারতীয় স্পিনারের সেরা পারফরম্যান্স।
এত দিন এই রেকর্ড ছিল ভগবৎ চন্দ্রশেখরের। ৬-৯৪, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে, অকল্যান্ডে, ১৯৭৬।

• শ্রীলঙ্কার মাটিতে কোনও ভারতীয় স্পিনারের সেরা বোলিং। হরভজন সিংহর ৬-১০২ এর আগে ছিল সেরা। ২০০৮-এ, গলেই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement