Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অভিষেকের মুখে ঋষভ, অনেকটাই স্বাভাবিক বিরাট

ছিয়ানব্বইয়ে সৌরভ-রাহুলের চমকপ্রদ জোড়া অভিষেকের মাঠ ছিল লর্ডস। আইপএলে ব্যাট হাতে ঝড় তোলা দিল্লির উইকেটকিপার ঋষভের আবির্ভাব মঞ্চ হতে চলেছে ব

সুমিত ঘোষ
নটিংহ্যাম ১৭ অগস্ট ২০১৮ ০৪:৩৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
মহড়া: অনুশীলনে ফিরল ভারত। ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্টে নামার প্রস্তুতি বিরাট কোহালির। বৃহস্পতিবার। গেটি ইমেজেস

মহড়া: অনুশীলনে ফিরল ভারত। ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্টে নামার প্রস্তুতি বিরাট কোহালির। বৃহস্পতিবার। গেটি ইমেজেস

Popup Close

রাতারাতি নাটকীয় পরিবর্তন না ঘটলে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, রাহুল দ্রাবিড়ের পথ ধরে বিলেতের মাটিতে কাল, শনিবার, টেস্ট অভিষেক ঘটতে চলেছে ঋষভ পন্থের।

ছিয়ানব্বইয়ে সৌরভ-রাহুলের চমকপ্রদ জোড়া অভিষেকের মাঠ ছিল লর্ডস। আইপএলে ব্যাট হাতে ঝড় তোলা দিল্লির উইকেটকিপার ঋষভের আবির্ভাব মঞ্চ হতে চলেছে বডিলাইন-খ্যাত হ্যারল্ড লারউডের কাউন্টি নটিংহ্যামশায়ারের মাঠ ট্রেন্ট ব্রিজ। বিখ্যাত দুই পূর্বসূরির মতো ঋষভও তাঁর অভিষেককে স্মরণীয় করে রাখতে পারবেন কি না, দেখার অপেক্ষায় থাকবে ক্রিকেট মহল।

লর্ডসে হারের পরে বৃহস্পতিবারেই প্রথম ভারতীয় দল অনুশীলনে নামল। রাত থেকে টানা বৃষ্টি চলতে থাকায় বিরাট কোহালিদের মাঠে নামা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছিল। বৃষ্টি থামার পরে মেঘলা আবহাওয়ায় প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে মাঠে পড়ে থাকলেন তাঁরা। এম বিজয়, চেতেশ্বর পূজারা, অজিঙ্ক রাহানেরা তখনই দেখে নিতে পারলেন, লর্ডসের চেয়েও প্রতিকূল পরিস্থিতি তাঁদের জন্য অপেক্ষা করছে ট্রেন্ট ব্রিজে। সকালের দিকে বেশ ঠাণ্ডা হাওয়া দিচ্ছিল। বিরাট কোহালিকে দেখা গেল সোয়েটারের সঙ্গে কান ঢাকা টুপিও পরে নিয়েছেন। আর ঠান্ডা হাওয়া কাজে লাগিয়ে আরও ভাল সুইং ও সিম বোলিং প্রদর্শনীর জন্য লোলুপ দৃষ্টিতে অপেক্ষা করেন দুই সুইং শিকারি জিমি অ্যান্ডারসন, এবং স্টুয়ার্ট ব্রড।

Advertisement

ভারতীয় দলের অনুশীলনে শুরুতেই দেখা গেল, এক জন উইকেটকিপার বল ছুড়ে দিচ্ছেন। অন্য জন ক্যাচ নেওয়ার চেষ্টা করছেন। এর মধ্যে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। ক্রিকেটের খুব স্বাভাবিক প্র্যাক্টিস। কিন্তু আসল চমক দুই কিপারের অবস্থান নিয়ে। যিনি বল ছুড়ছেন, তাঁর নাম দীনেশ কার্তিক। যিনি কিপিং প্যাড পরে ক্যাচ লুফছেন, তাঁর নাম ঋষভ পন্থ। বোঝাই যাচ্ছে, সিরিজের প্রথম দু’টি টেস্টে ব্যাট হাতে ব্যর্থতার পরে কার্তিককে নিয়ে মোহভঙ্গ হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের। যত সময় এগোল, অনুশীলন দেখে ততই সম্ভাবনা আরও জোরাল হল যে, ঋষভকেই খেলানো হবে ট্রেন্ট ব্রিজে। তাঁকে অশ্বিনের স্পিনের বিরুদ্ধে আলাদা করে অনুশীলন করতে দেখা গেল। নেটে ব্যাট করতে পাঠানো হল। কার্তিকও শেষের দিকে ব্যাট করলেন ঠিকই কিন্তু তত ক্ষণে ভাঙা হাট। অনেকেই মাঠ ছেড়ে ড্রেসিংরুমে ফিরে গিয়েছেন। হেড কোচ রবি শাস্ত্রীর সাংবাদিক সম্মেলন পর্যন্ত হয়ে গিয়েছে। শাস্ত্রী যদিও ঋষভের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে প্রশ্নে সাংবাদিকদের বলে গেলেন, ‘‘শনিবার এগারোটা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তখন জেনে যাবেন।’’



চর্চায়: ট্রেন্ট ব্রিজে অভিষেক হতে পারে ঋষভ পন্থের। ফাইল চিত্র

তবে হেড কোচ ভাঙতে না চাইলেও ঋষভের অভিষেকের মঞ্চ কার্যত তৈরিই। কার্তিকের উইকেটকিপিং তা-ও কাজ চালিয়ে দেওয়ার মতো হচ্ছিল। কিন্তু ব্যাটসম্যান কার্তিককে সম্পূর্ণ অন্ধকারে দেখাচ্ছে। দুই টেস্টের চার ইনিংসে তিনি দু’বার শূন্য রানে আউট হয়েছেন। এবং, তাঁর আউট হওয়ার ভঙ্গি দেখে মনে হচ্ছে, ইংল্যান্ডে কী ভাবে ব্যাট করতে হয়, তা নিয়ে প্রাথমিক ধারণাটুকুও নেই। বাঁ হাতি বোলার স্যাম কারেন খুব ভাল ইনসুইং করাচ্ছেন। অর্থাৎ ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ক্ষেত্রে যেটা তাঁর শরীরের ভিতরের দিকে আসবে। মেঘলা আবহাওয়ায় কার্তিক সেই ভিতরে আসা বল কভার ড্রাইভ মারতে যাচ্ছেন। যে কারণে ব্যাট আর প্যাডের মাঝখানে হাইওয়ে খুলে যাচ্ছে আর তা দিয়েই হুড়মুড়িয়ে লরি ঢুকে তাঁকে চাপা দিয়ে চলে যাচ্ছে।

ব্যাটিংয়ের এমন মন্দার বাজারে একে তো ওপেনাররা রাতের ঘুম কেড়ে নিচ্ছেন। চেতেশ্বর পুজারা নামক দেওয়াল ধসে পড়েছে। অজিঙ্ক রাহানেকে দেখে মনে হচ্ছে, ব্যাটিং ভুলে গিয়েছেন। তার উপর কার্তিকের এমন বালকসুলভ ব্যাটিং ব্লাড প্রেশার আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে। তার তুলনায় নবাগত ঋষভ অনেক ভাল পছন্দ। অক্টোবরে ২১ বছর পূর্ণ হবে তাঁর। ইংল্যান্ড দু’জন কুড়ি বছরের ছেলেকে এই সিরিজে খেলাচ্ছে— স্যাম কারেন এবং ওলি পোপ। শনিবার আরও এক কুড়ির অভিষেকের অপেক্ষা।

সম্প্রতি রাহুল দ্রাবিড়ের কোচিংয়ে ভারতীয় ‘এ’ দলের হয়ে ইংল্যান্ড সফর করেছেন ঋষভ। বেশ ভালই খেলেছিলেন তিনি। ‘এ’ দলের হয়ে দু’টো প্রথম শ্রেণির ম্যাচে মোট রান করেছিলেন ১৮৯। গড় ছিল ৬৩। তিনটি হাফ সেঞ্চুরি করেন। এ দিন নেটে তাঁর আক্রমণাত্মক ব্যাটিং দেখতে দেখতে মনে হচ্ছিল, যদি স্নায়ুকে নিয়ন্ত্রণে রেখে নিজের স্বাভাবিক ব্যাটিং করতে পারেন, অ্যান্ডারসন-ব্রডদের উপরে পাল্টা চাপ তৈরি করা যেতে পারে। তার জন্য অবশ্য জানতে হবে অফস্টাম্পটা কোথায় এবং বাইরের বলে ব্যাট বাড়িয়ে দিলে চলবে না।

কার্তিকের জায়গায় ঋষভকে আনা ছাড়াও কয়েকটি পরিবর্তন অবশ্যাম্ভাবী। দুই স্পিনারে নামার কোনও সম্ভাবনা আপাতত আর নেই। ট্রেন্ট ব্রিজে একমাত্র স্পিনার অশ্বিনের সঙ্গে তিন পেসার হবেন সম্ভবত মহম্মদ শামি, যশপ্রীত বুমরা এবং ইশান্ত শর্মা বা উমেশ যাদব। আরও একটা বদল ঘটতে পারে। ওপেনার হিসেবে ফিরতে পারেন শিখর ধওয়ন। তবে এম বিজয় না কে এল রাহুল, কে তাঁর জন্য জায়গা করে দেবেন তা এখনও নিশ্চিত নয়। এ দিন অনুশীলনে তিন জনকেই ব্যাট করতে দেখা গেল। তবে শিখর একেবারে শেষের দিকে গিয়ে ফের ব্যাট করলেন। তা দেখে মনে হচ্ছিল, তাঁকে হয়তো আভাস-ইঙ্গিতে বলেই রাখা হয়েছে, তৈরি থাকো।

কোহালির খেলা নিয়েও আপাত ভাবে কোনও সংশয় নেই। যদিও নেটে জোরে বোলারদের এ দিন খেলেননি। তবে সামনে থেকে ছোড়া বলে খানিক্ষণ প্র্যাক্টিস করার পরে এক বার ফিজিয়ো প্যাট্রিক ফারহাতকে চেঁচিয়ে ডেকে বলে দিলেন, ‘প্যাট্রিক, অল গুড।’’ শুনে মনে হল, ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্টের জন্য মনে-মনে স্টান্স নিয়েই ফেললেন। শাস্ত্রীও বলে গেলেন, ‘‘বিরাট এখন অনেকটাই ভাল রয়েছে।’’

আর একটা চোখে পড়ার মতো দৃশ্য দেখা গেল। চেতেশ্বর পূজারাকে বল ছুড়ে ছুড়ে ব্যাটিং প্র্যাক্টিস করাচ্ছেন কোহালি। ক্যাপ্টেনের ঘাড়েই যে গুরুদায়িত্ব দলকে টেনে তোলার!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement