Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

সাডেন ডেথে জিতল রায়কতপাড়া স্পোর্টিং

সাডেন ডেথে জয় পেল রায়কতপাড়া স্পোর্টিং অ্যাসোসিয়েশন(আরএসএ)। সোমবার জলপাইগুড়ির টাউন ক্লাব মাঠে আরএসএ আয়োজিত ফুটবল প্রতিযোগিতায় আরএসএ দলটি আলিপ

রাজা বন্দ্যোপাধ্যায়
জলপাইগুড়ি ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৩:৫৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
খেলা চলছে জলপাইগুড়ি টাউন ক্লাবের মাঠে। ছবি: সন্দীপ পাল।

খেলা চলছে জলপাইগুড়ি টাউন ক্লাবের মাঠে। ছবি: সন্দীপ পাল।

Popup Close

সাডেন ডেথে জয় পেল রায়কতপাড়া স্পোর্টিং অ্যাসোসিয়েশন(আরএসএ)। সোমবার জলপাইগুড়ির টাউন ক্লাব মাঠে আরএসএ আয়োজিত ফুটবল প্রতিযোগিতায় আরএসএ দলটি আলিপুরদুয়ারের যুবসঙ্ঘকে হারিয়ে দেয়। টাইব্রেকারে খেলার মীমাংসা না হওয়ায় খেলা গড়ায় সাডেন ডেথে। নির্ধারিত সময়ে খেলার ফল ছিল ১-১। প্রথমার্ধে গফুরের দেওয়া গোলে যুবসঙ্ঘ এগিয়ে যায়। দ্বিতীয়ার্ধে আরএসএর শ্রীকুমার কার্জী গোলটি শোধ দেন। টাইব্রেকারেও খেলার ফল দাঁড়ায় ৩-৩। এরপর সাডেন ডেথে আরএসএ-র গোল হয়। খেলার সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন আরএসএ-র গোলকিপার গনেশ এক্কা।

আলিপুরদুয়ারের দলটি নামেই আলিপুরদুয়ারের যুবসঙ্ঘ। আসলে খেললো বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। পুরো দলটির সবাই বাংলাদেশের দ্বিতীয় বি লিগের খেলোয়াড়। ঢাকার বিভিন্ন দল থেকে খেলোয়াড়দের নিয়ে গঠিত। যুবসঙ্ঘের কোচ আলোকরঞ্জন ঘোষ বলেন, “আদতে যুবসঙ্ঘ আলিপুরদুয়ার জংশন এলাকার দল হলেও এই প্রতিযোগিতার জন্য আমরা বাংলাদেশের দলটিকে নিয়ে এসেছি।”

অন্যদিকে আরএসএর দলে একজনও ভাড়া করা খেলোয়াড় নেই। সকলেই এবারের লিগে খেলেছে। আরএসএ জলপাইগুড়ির নামী দল। গতবারের জলপাইগুড়ির সুপার ডিভিশন লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল দলটি। এবারের সুপার ডিভিশন লিগেও চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে তাঁরা প্রথম দিকে আছে। ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক কিরণ শা বলেন, “আমাদের খেলোয়াড়দের মনোবল যাতে অটুট থাকে সেই লক্ষ নিয়েই আমরা খেলছি।’’

Advertisement

সোমবার দলগত সংহতির জন্যই যুবসঙ্ঘের বাংলাদেশের খেলোয়াড় সমৃদ্ধ দলের সঙ্গে সমানতালে টক্কর দিয়ে ম্যাচ বার করে নিল আরএসএ। তবে আক্রমণ প্রতিআক্রমণের খেলা হয়নি। প্রথমার্ধে যুবসঙ্ঘের কৃষ্ণ রায়ের একটি দারুণ শট আরএসএর গোলকিপার গণেশ এক্কা ফিস্ট করে বার করে দেন। প্রথমার্ধের ২৭ মিনিটে যুবসঙ্ঘের হৃদয়ের পাস থেকে বল পেয়ে দু’জন খেলোয়াড়ের মাঝখান দিয়ে গফুর বলটি গোলে ঠেলে দেন। যুবসঙ্ঘ এক গোলে এগিয়ে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধে যুবসঙ্ঘকে চেপে ধরে আরএসএ। দশ জন খেলোয়াড়ই উঠে এসে আক্রমণ করতে থাকেন। আরএসএর সঞ্জীব রায় এবং প্রীতম কুজুর দু’টি সুযোগ নষ্ট করেন। দ্বিতীয়ার্ধে ৩০ মিনিটের মাথায় যুবসঙ্ঘের গোলের মুখে আরএসএর ইজগেল ব্যাসনেট বল ঠেলে দিলে শ্রীকুমার কার্জী গোলে শট মারলে যুবসঙ্ঘের জালে জড়িয়ে যায় বল।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement