Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

স্কিলের দিক থেকে আমরাই ভাল খেলেছি, জিতিয়ে বললেন কোহালি

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৫ নভেম্বর ২০১৮ ১৮:৩১
রবিবার সিডনিতে বিরাটই পরিত্রাতা ভারতের। ছবি: এএফপি।

রবিবার সিডনিতে বিরাটই পরিত্রাতা ভারতের। ছবি: এএফপি।

সার্বিক ভাবে, স্কিলের দিক থেকে এই সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার থেকে আমরাই ‘বেটার’ দল ছিলাম। টি-টোয়েন্টি সিরিজে সমতা ফেরানোর পর বললেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি।

ব্রিসবেনে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে শেষ ওভারে চার রানে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। মেলবোর্নে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বৃষ্টির জন্য ভারত রান তাড়া করতেই পারেনি। সেজন্যই সিডনিতে সিরিজে সমতা ফেরানোর চাপ ছিল ভারতের উপর।

ম্যাচ-জেতানো ইনিংসের পর কোহালি বলেছেন, “শুরুতে রোহিত শর্মা ও শিখর ধওয়ন যা ব্যাট করেছে, তাতে চাপ কমে গিয়েছিল। রান তাড়াকে সহজ দেখাচ্ছিল। শেষের দিকে ডিকে (দীনেশ কার্তিক) বেশ জমাট ছিল। আমার সঙ্গে জুটি বেঁধে জয় ছিনিয়ে আনতে সাহায্য করল। ওদের অ্যাডাম জাম্পা আর গ্লেন ম্যাক্সওয়েল দারুণ বল করল। আমার মনে হয়, সার্বিক ভাবে আমরা স্কিলের দিক দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে বেটার খেলেছি। বল হাতে আমরা যেমন বেশি পেশাদার ছিলাম। এটা ১৮০ রানের উইকেট ছিল। এই ১৫ রান কম থাকা ফারাক গড়ে দিল।”

Advertisement



জয়ের দৌড় বিরাটের। ছবি: এএফপি।

এই নিয়ে ১৪ বার কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে রান তাড়ায় অপরাজিত থাকলেন কোহালি। প্রতিবারই জিতেছে ভারত। তবে ৪১ বলে ৬১ নট আউটের পরও ম্যাচের সেরা তিনি নন। চার উইকেট নেওয়া ক্রুনাল পান্ড্যই পেয়েছেন নায়কের সম্মান। তিনি বলেছেন, “দলের জয়ে অবদান রাখতে পেরে দারুণ লাগছে। প্রথম ম্যাচের পর নিজের ক্ষমতা অনুসারে বল করেছি। হার্ডল টপকাতে পেরে তাই স্বস্তি পাচ্ছি। ভারতীয় দলের সেরা দিক হল, কেউ ভাল খেলুক বা বাজে খেলুক, সবাইকেই ভরসা জোগানো হয়।” সিরিজের সেরা হয়েছেন শিখর ধওয়ন। সিরিজে দুই ইনিংসে ১১৭ রান করেছেন তিনি। ‘গব্বর’ বললেন, “বিনোদন দিতে ভালবাসি দর্শকদের। আক্রমণাত্মক ক্রিকেটই ভাল লাগে। এখানে আমাদের এত সমর্থক দেখে মন ভরে গেল। জিতে সিরিজ শেষ করতে পেরে তৃপ্ত।”

অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বললেন, “পাওয়ারপ্লে চলাকালীন দুর্দান্ত ব্যাট করল ভারত। আমরা মুহূর্তের পাগলামিতে কয়েকটা উইকেট হারিয়ে বসেছিলাম। মিডল ওভারে আমরা পরিকল্পনা মতো খেলতে পারিনি। আরও খাটতে হবে। তবে ইতিবাচক দিকও কিছু রয়েছে।” টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষে দুই দলেরই ফোকাস ঘুরছে টেস্ট সিরিজে। বুধবার থেকে চারদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ভারত। অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের অধিকাংশ সদস্য আবার খেলবেন শেফিল্ড শিল্ডের ম্যাচ।




(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)

আরও পড়ুন

Advertisement