Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

সুব্রতর শিবিরে হঠাত্ ব়ড় ধাক্কা

সবে প্যানেল জমা পড়েছে। এখনও মনোনয়ন পরীক্ষা হয়নি। তার আগেই বড় ধাক্কা খেল বলরাম চৌধুরী-সুব্রত ভট্টাচার্যদের বিরোধী শিবির। যে তিন জন হেভিওয়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৪ এপ্রিল ২০১৫ ০৩:২২
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

সবে প্যানেল জমা পড়েছে। এখনও মনোনয়ন পরীক্ষা হয়নি। তার আগেই বড় ধাক্কা খেল বলরাম চৌধুরী-সুব্রত ভট্টাচার্যদের বিরোধী শিবির।

যে তিন জন হেভিওয়েট প্রার্থী মোহনবাগান নির্বাচনে বিরোধীগোষ্ঠীর হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন, সেই তিন জনই বৃহস্পতিবার নিজেদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিলেন বলে সূত্রের খবর। এঁরা হলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মুখ্যসচেতক শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, হাওড়ার দলীয় বিধায়ক অশোক ঘোষ এবং শিয়ালদহের তৃণমূল নেতা সজল ঘোষ। সূত্রটি আরও জানাচ্ছে, এ দিন বন্ধ খামে ওই তিন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ক্লাব নির্বাচন থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহারের চিঠি মোহনবাগানে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

বলরাম চৌধুরী, যিনি সচিব পদে অঞ্জন মিত্রের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন, ফোনে এ বিষয়ে বললেন, ‘‘আমি এখনও সঠিক ভাবে কিছু জানি না। যদি কেউ নাম প্রত্যাহার করে থাকেন, সেটা তাঁর ব্যাপার।’’ বিরোধী গোষ্ঠীর অন্যতম প্রধান মুখ সুব্রত ভট্টাচার্য আবার সহজে মচকানোর পাত্র নন। বললেন, ‘‘রাজনৈতিক কারণে কেউ যদি নাম প্রত্যাহার করে নেন তবে তো কিছু করার নেই! এটুকু বলতে পারি, এতে আমাদের কোনও সমস্যা হবে না।’’ ক্লাবের সহ সচিব সৃঞ্জয় বসু বললেন, ‘‘এ ব্যাপারে আমাদের কিছু জানা নেই। এটা বিরোধীদের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। যদি কেউ নাম প্রত্যাহার করে থাকেন তবে আমাদের কাজে নিশ্চয়ই সন্তুষ্ট বলে করেছেন।’’

Advertisement

বিরোধীগোষ্ঠীর তিন জন নাম প্রত্যাহার করে নেওয়ার ফলে ভোটের আগেই কর্মসমিতির একটি পদ সম্ভবত বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় পেয়ে যাচ্ছে শাসকগোষ্ঠী। শুক্রবারই মনোনয়ন পরীক্ষা হওয়ার কথা।

ফেড কাপ দু’বছর বন্ধ: এখনই পুরোপুরি নয়। ফেডারেশনের কার্যকরী কমিটির সভায় আজ ঠিক হয়েছে, আগামী দু’বছরের জন্য ফেড কাপ আপাতত বন্ধ রাখা হবে। তার জায়গায় আই লিগ দ্বিতীয় ডিভিশনকে আরও গুরুত্ব দিয়ে করতে চাইছেন কর্তারা। ফেডারেশন সচিব কুশল দাস বললেন “এই নয় যে আমরা ফেড কাপ বন্ধ করে দিচ্ছি। আসলে দু’বছর পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে।” তিনি আরও জানান, এ বার থেকে ফেডারেশনের অনূর্ধ্ব-১৯ লিগ আরও বড় আকারে হবে। সঙ্গে ফেডারেশন সচিব বলে দিলেন, “এ বছর আই লিগে অবনমন বন্ধ থাকবে বলে যে রটনা চলছে তা ভুল। ফিফা বা এএফসির নিয়মে কোনও দেশের জাতীয় লিগে রেলিগেশন বন্ধ রাখা যায় না। আই লিগেও অবনমন কোনও ভাবে বন্ধ হচ্ছে না।” এ ছাড়া এ বার থেকে সন্তোষ ট্রফিতে সব রাজ্য দলকে কম পক্ষে পাঁচ জন অনূর্ধ্ব-২১ ফুটবলার খেলাতে হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement