Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

‘এখনও ৯০ মিনিট বাকি, মাত্র এক গোলে আমরা এগিয়ে’

সেকেন্ড গোলটা শোধ হতে যে ভাবে এটিকে কর্ণধার সঞ্জীব গোয়েন্‌কার সঙ্গে হাই ফাইভ করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, তাতে মনে হচ্ছিল দিল খুশ হয়ে গিয়েছে তাঁ

গৌতম ভট্টাচার্য
কলকাতা ১১ ডিসেম্বর ২০১৬ ০৩:৩৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

প্রশ্ন: ভেবেছিলেন এই ফল হতে পারে?

সৌরভ: স্পোর্টসে কোনও কিছুই অসম্ভব নয়।

Advertisement

প্র: কিন্তু সবাই তো এটিকে-কে উড়িয়েই দিয়েছিল। প্রায় প্রত্যেক বিশেষজ্ঞ বলছিলেন, ডিফেন্সে অর্ণব নেই। গোলে দেবজিৎ নেই। হার মোটামুটি অনিবার্য।

সৌরভ: আমার সেটা মনে হয়নি। আটলেটিকো মাদ্রিদ যুক্ত থাকার জন্যেই হয়তো আমাদের টিমে অদ্ভুত একটা সংস্কৃতি আছে। এটিকে হারতে পারে, জিততে পারে। এটিকের মানসিতকাটাই অন্য লেভেলের।

প্র: মানসিকতা বলতে কী?

সৌরভ: মানসিকতা বলতে একটা ড্রেসিংরুম কালচার। সবাই ফোকাসড। মোটামুটি লেভেল-হেডেড। একে অন্যের কাছাকাছি থাকে। সে জন্যই এটিকে এত কনসিস্টেন্ট।

প্র: হিউম যখন জয়সূচক পেনাল্টিটা মারছিলেন, তখন আপনি ভিআইপি গ্যালারিতে উবু হয়ে মুখ নীচের দিকে। কী ভাবছিলেন?

সৌরভ: ভাবছিলাম হিউমের কনভার্শন রেট খুব ভাল। ধরে নেওয়া যায় গোল করবে।

প্র: কিন্তু এই মুহূর্তটা তো একটা বিশাল মুহূর্ত। ড্র আর জয়ের মধ্যে একটা সূক্ষ্ম তফাত। ক্রিকেট ক্যাপ্টেন হিসেবে যে টেনশন হত আর ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক হিসেবে যা হয়, তার মধ্যে তফাত কী?

সৌরভ: আমি ঠিক ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকের দৃষ্টি থেকে দেখি না। আমি আজও জিনিসগুলো প্লেয়ারের মাইন্ডসেট থেকেই দেখি। সেই মাইন্ডসেটটা অনেক বেশি কেয়ারিং আর প্র্যাক্টিক্যাল। আমি একটা হার বা জিতে প্রচণ্ড উচ্ছ্বসিত বা বিচলিত কোনওটাই হই না। কারণ আমি জানি স্পোর্টসে সব কিছু কন্ট্রোলে থাকে না।

প্র: আপনার মতে আজকের ম্যান অব দ্য ম্যাচ কে?

সৌরভ: অবশ্যই হিউম।



প্র: আপনার দেখা কলকাতা মাঠের সেরা বিদেশি কি হিউম?

সৌরভ: না। মজিদ বাসকর।

প্র: কী বলছেন! মজিদ বাসকর যখন খেলতেন তখন আপনার বয়স নয় কী দশ। মনে আছে?

সৌরভ: অবশ্যই মনে আছে। তখন সব ম্যাচ আমি মন দিয়ে দেখতাম।

প্র: দ্বিতীয় কাকে রাখতেন?

সৌরভ: সুরজিৎ সেনগুপ্ত।

প্র: আমি বিদেশিদের কথা জিজ্ঞেস করছি। ব্যারেটো না হিউম?

সৌরভ: ও বিদেশি? তা হলে হিউম।

প্র: আজকের ম্যাচটা কি কলকাতায় এটিকের দেখা আপনার বেস্ট ম্যাচ?

সৌরভ: না, আমি এখনও প্রথম বছর গোয়াকে হারিয়ে ফাইনালে যাওয়াটা আগে রাখব।

প্র: দিয়েগো ফোরলানকে কেমন দেখলেন?

সৌরভ: ফোরলানের আজকে অফ ডে ছিল। তা-ও একটা গোল করিয়েছে। তবে ও তো টুর্নামেন্টের বাইরেই চলে গেল।

প্র: ফোরলানের মতো অভিজ্ঞ প্লেয়ারের কি মাথায় রাখা উচিত ছিল না যে, একটা ইয়েলো হয়ে গিয়েছে?

সৌরভ: স্পোর্টসে সব সময় হিসেব করে হয় না। খেলার মাঠে প্রেশার এমন একটা জিনিস, অনেক সময় না চাইলেও আপনাকে ভুল করিয়ে দেয়।

প্র: আজকের খেলাকে কী ভাবে ব্যাখ্যা করবেন?

সৌরভ: আমার মতে ফরেন গোলকিপার বসিয়ে দেবজিতকে খেলানো উচিত ছিল। আর প্রথম থেকে লারা।

প্র: কিন্তু দেবজিতের তো চোট।

সৌরভ: না, ইন্ডিয়ান গোলকিপারকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

প্র: মলিনার কোচিং সম্পর্কে আপনার কী ধারণা?

সৌরভ: ভাল। টিমটাকে ভাল ধরেছে।

প্র: আর হাবাস?

সৌরভ: আই স্টিল থিঙ্ক হাবাস ওয়াজ আউটস্ট্যান্ডিং।

প্র: কী বলছেন? আজকের বাজারেও বলছেন?

সৌরভ: হ্যাঁ বলছি। হাবাসের আচরণ, অ্যাটিটিউড-গত সমস্যা না থাকলে হি ওয়াজ জাস্ট ব্রিলিয়ান্ট।

প্র: এ রকম একটা অসাধারণ ম্যাচ জিতে কী মনে হচ্ছে? উচ্ছ্বসিত?

সৌরভ: মনে হচ্ছে না।

প্র: কেন?

সৌরভ: শেষ ষোলো মিনিট ফোরলান বেরিয়ে যাওয়ার পর আমাদের আরও একটা গোল করা উচিত ছিল।

প্র: এই ম্যাচ জিতেও মুম্বইয়ের জন্য ভরসা পাচ্ছেন না?

সৌরভ: মনে রাখবেন আমরা মাত্র এক গোলে এগিয়ে। ওদের মাঠে পুরো নব্বই মিনিট পড়ে রয়েছে।

প্র: সেমিফাইনালে নিশ্চয়ই মুম্বই যাচ্ছেন?

সৌরভ: এখনও ঠিক নেই।

প্র: এ বছর আপনাকে সব ম্যাচে দেখা যাচ্ছে না। যেটা আগে দেখা যেত। কারণ কী?

সৌরভ: ওই যে সিএবি অনেকটা সময় নিয়ে নিচ্ছে।

প্র: ফুটবলে আজ ফোরলান লালকার্ড দেখলেন। কিন্তু ক্রিকেট মাঠে এমন কী হয়েছে যে, সেখানে আপনাদের এমসিসি কমিটি লালকার্ড সুপারিশ করল? ক্রিকেট তো আর বডি কনট্যাক্ট স্পোর্টস নয়।

সৌরভ: আইসিসি দেশে-বিদেশে কতগুলো লোকাল ম্যাচের ভিডিও দেখাচ্ছিল যেগুলো সাংঘাতিক। সাউথ আফ্রিকার লোকাল লিগে একজন ব্যাটসম্যান উইকেটকিপারকে ব্যাট দিয়ে মারতে গেছিল। উইকেটকিপার মাথা সরিয়ে না নিলে ওখানেই মারা যেত। এ সব ভয়াবহ ঘটনার কথা ভেবেই লাল কার্ড।

ছবি: উৎপল সরকার।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement