Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Sports News

খোঁচালে আমরাও পাল্টা দেব: বিরাট কোহালি

যেদিন সব ভুলে ক্ষমা চেয়ে নিলেন অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ঠিক সেদিনই পাল্টা হুঙ্কার ছুড়ে দিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি। ম্যাচ শেষে যখন স্মিথ বলেন, আবেগবশত খারাপ শব্দ বলে ফেলেছেন তখন কোহালি জানিয়ে দিলেন অস্ট্রেলিয়ানদের সঙ্গে কোনও বন্ধুত্ব নেই।

মহম্মদ শামির সঙ্গে খুনসুটিতে ব্যস্ত বিরাট কোহালি। ছবি: রয়টার্স।

মহম্মদ শামির সঙ্গে খুনসুটিতে ব্যস্ত বিরাট কোহালি। ছবি: রয়টার্স।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ২৮ মার্চ ২০১৭ ১৯:০১
Share: Save:

যেদিন সব ভুলে ক্ষমা চেয়ে নিলেন অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ঠিক সেদিনই পাল্টা হুঙ্কার ছুড়ে দিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি। ম্যাচ শেষে যখন স্মিথ বলেন, আবেগবশত খারাপ শব্দ বলে ফেলেছেন তখন কোহালি জানিয়ে দিলেন অস্ট্রেলিয়ানদের সঙ্গে কোনও বন্ধুত্ব নেই। ম্যাচ শেষে কী কী বললেন বিরাট কোহালি...

Advertisement

পাল্টা দেব

আমরা শীর্ষে থাকি বা না থাকি, যারা আমাদের খোচাবে তাঁদের আমরা বলব আর পাল্টা দেব। সবাই এমনটা হজম করতে পারে না কিন্তু আমরা এগুলো খুব ভাল মতো নিতে পারি এবং আরও ভালমতো পাল্টা দিতে পারি।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব

Advertisement

না আমি ভুল প্রমাণিত হয়েছি। সিরিজ শুরুর আগে যেটা বলেছিলাম সেটা ভুল ছিল। আর সেই ভুল হবে না।

ব্লগ প্রসঙ্গে

এরকম অনেকে আছেন যাঁরা বিশ্বের কোনও কোনায় বসে মশালাদার লেখালিখি করতে ভালবাসেন। সব থেকে সহজ কাজ হল ঘরে বসে ব্লগ লেখা আর কথা বলা। কিন্তু মাঠে নেমে বল বা ব্যাট করা আলাদা বিষয়।

আরও খবর: স্মিথের জন্য সম্মান বেড়ে গেল: গাওস্কর

নিজের অধিনায়কত্ব নিয়ে

আমি দায়িত্ব নিতে ভালবাসি। আমি ভারতের হয়ে যখনই খেলি তখনই নতুন কিছু করার চেষ্টা করি। খেলার মধ্যে মিশে যাই। দায়িত্ব ও চাপ এমন একটা বিষয় যেটা মাথায় থাকবে ভবিষ্যতে কিন্তু যখন আমার শরীর খেলার উপযুক্ত হবে তখনই আমি নেমে পড়ব।

এই সিরিজ

অবিশ্বাস্য। এটা আমাদের সেরা সিরিজ। যে ভাবে আমরা বিশ্বের সাত নম্বর দল থেকে এক নম্বর দল হয়ে উঠলাম সেটা একটা অসাধারণ প্রাপ্তি। অধিনায়ক হিসেবে আমি গর্বিত। আমার মতে, ইংল্যান্ড সিরিজের তীব্রতা ছিল। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া যে ভাবে লড়াই দিয়েছে সেটাও অন্যরকম ছিল। আমাদের ছেলেরা ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

হতাশ অস্ট্রেলিয়া দল।

অধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে

অজিঙ্ক অসাধারণ অধিনায়কত্ব করেছে। বাইরে বসে সেটা দেখাটা খুব ভাল অনুভূতি ছিল।

দলের ফিটনেস

ক্রমশ উন্নতি করেছে। ঘরের মাঠে পর পর সিরিজ। আমরা আমাদের ফিটনেসে যে ভাবে পরিবর্তন এনেছি সেটা কাজে দিয়েছে। সকলেই প্রায় নিজেদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে সমর্থ হয়েছে।

এই মরসুম

অতীতে আমরা খুব সহজেই ম্যাচ হাতছাড়া করে দিতাম। কিন্তু এই মরসুমটা তেমন নয়। এটা দলের মরসুম। কোনও এক দু’জনের উপর নির্ভরশীল ছিলাম না। পুরো টিম খেলেছে।

পেসারদের সাফল্য

পেসাররা অসাধারণ। যে পর্যায়ের ফিটনেস ফার্স্ট বোলাররা দেখিয়েছে যেটা একটা খেলার মোর ঘুরিয়ে দিয়েছে।

নিজের চোট

কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই আমি পুরো ফিট হয়ে যাব। ১০০ শতাংশ ফিট হয়েই মাঠে নামব।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.