Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Wimbledon 2021: জোকোভিচ, ফেডেরারদের ছেড়ে উইম্বলডনে চর্চা শুধু পা হড়কানো ঘাস নিয়ে

পড়ে গিয়ে চোট পেয়ে প্রথম রাউন্ডেই ছিটকে গিয়েছেন সেরিনা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০১ জুলাই ২০২১ ১৫:৪৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
পা হড়কে পড়েছেন নোভাক জোকোভিচ।

পা হড়কে পড়েছেন নোভাক জোকোভিচ।

Popup Close

কেভিন অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে পাঁচ বার পা হড়কে পড়েছেন নোভাক জোকোভিচ

প্রথম রাউন্ডে আলিয়াকসান্দ্রা সাসনোভিচের বিরুদ্ধে ম্যাচে সেরিনা উইলিয়ামস পড়ে গিয়ে গোড়ালি মচকে ফেলেন।

সেরিনার ম্যাচের কয়েক ঘন্টা আগে রজার ফেডেরারের বিরুদ্ধে আদ্রিয়ান মানারিনো পড়ে গিয়ে হাঁটুতে চোট পেয়ে ম্যাচ ছাড়তে বাধ্য হন। না হলে প্রথম রাউন্ডেই ফেডেরারকে হারিয়ে উইম্বলডনের ইতিহাসে সবথেকে বড় অঘটনটা ঘটাতে পারতেন।

Advertisement
সেরিনা উইলিয়ামস পড়ে গিয়ে গোড়ালি মচকে ফেলেন।

সেরিনা উইলিয়ামস পড়ে গিয়ে গোড়ালি মচকে ফেলেন।


নিক কিরিয়স পড়ে গিয়ে দুটি পায়েই চোট পান। শেষ পর্যন্ত পাঁচ সেটে ম্যাচ জেতেন।

ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কুকে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে অন্তত বার ছয়েক পড়ে যেতে দেখা যায়। তিনি জিততে পারেননি।

২০১৮-র সেমিফাইনালিস্ট জন ইসনারকেও হড়কাতে হয়। জাপানের অখ্যাত ইয়োশিহিতো নিশিয়োকার কাছে পাঁচ সেটের লড়াইয়ে হেরে যান।

প্রথম তিন দিনের উইম্বলডনে সব ছেড়ে এই ঘটনাগুলিই আলোচনার কেন্দ্রে। প্রথম তিনটি সেন্টার কোর্টে, চতুর্থটি এক নম্বর কোর্টে, শেষ দুটি দুই নম্বর কোর্ট ও ১৮ নম্বর কোর্টে। লন্ডন শহরের সেরা ঐতিহ্যগুলি বাছতে বসলে বিগ বেন, বাকিংহাম প্যালেস, টাওয়ার ব্রিজের সঙ্গে যে উইম্বলডনের ঘাসের কোর্ট অনায়াসে জায়গা করে নেবে, সেটাই এখন পা পিছলে মুখ থুবড়ে পড়ার সামিল। অনেকেই বলছেন, যে জোকোভিচ পাঁচ বার মনের সুখে সেন্টার কোর্টের ঘাস চিবিয়েছিলেন, সেই ঘাসই এ বার হয়ত তাঁকে বমি করে উগরে দিতে হবে।

উইম্বলডনে এ বারের ঘাস নিয়ে সমস্যা কোথায়? উদ্যোক্তাদের বক্তব্য, বৃষ্টিই ডোবাচ্ছে এ বার। বাড়তি সমস্যা সেন্টার কোর্ট এবং এক নম্বর কোর্ট নিয়ে। বৃষ্টি হলে এই দুটি কোর্টের ছাদ ঢেকে খেলা হচ্ছে। দীর্ঘ সময় বদ্ধ পরিবেশে খেলা হওয়ার জন্য কোর্টের ভেতরে আর্দ্রতা বাড়ছে। আলো, হাওয়া না ঢোকায় ঘাস দ্রুত এবং বেশি ভিজে যাচ্ছে। সেরিনার বিদায়ের কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখা গিয়েছিল, সেন্টার কোর্টে জল ছেটানো হচ্ছে। বাদ যায়নি বেস লাইনের পিছনের অংশও। শুধু তাই নয়, এরপর সবুজ তাঁবুর মতো জিনিস দিয়ে গোটা কোর্ট ঢেকে রাখা হয়েছিল। রাতের ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে সেগুলি সরানো হয়। এতে পরিস্থিতি আরও কঠিন হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। উইম্বলডনের অভিজ্ঞ মাঠ কর্মীদের নিয়ে হঠাৎই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রধান গ্রাউন্ডসম্যান নিল স্টাবলে প্রতিযোগিতা শুরু হওয়ার আগে একবার বলেছিলেন, এ বারের সেন্টার কোর্ট তাঁর রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে।

উইম্বলডনে এ বারের ঘাস নিয়ে সমস্যা কোথায়?

উইম্বলডনে এ বারের ঘাস নিয়ে সমস্যা কোথায়?


ফেডেরার ঠিক এই বিষয়টিকেই তুলে ধরেছেন। তিনি আশাবাদী, প্রতিযোগিতা যত এগোবে, এই সমস্যা তত কমে যাবে। তাঁর বক্তব্য, ‘‘বদ্ধ স্টেডিয়ামে খেলাটা বেশি কঠিন। ঘাস একটু বেশি পিচ্ছিল থাকছে। খুব সাবধানে পা ফেলতে হচ্ছে। প্রথম দুটো রাউন্ড বেশি কঠিন। প্রতিযোগিতা যত গড়াবে, ঘাস তত শুকনো হবে। তখন খেলা অনেক সহজ হয়ে যাবে। তবে পরপর যে ভাবে খেলোয়াড়রা ছিটকে যাচ্ছে, সেটা খুব খারাপ। সেরিনাদের জন্য খারাপ লাগছে।’’

ফেডেরারকে প্রায় ছিটকে দেওয়া মানারিনো, বা সেরিনার বিরুদ্ধে ওয়াকওভার পেয়ে যাওয়া সাসনোভিচ, দু’জনেরই বক্তব্য, সেন্টার কোর্টে খেলতে জান বেরিয়ে গিয়েছে।

আরও একটা বিষয় নিয়ে সোচ্চার অনেকেই। সেটা হল খেলোয়াড়দের জুতো। খেলোয়াড়দের একটি নির্দিষ্ট ধরনের জুতো পরারই অনুমতি দেওয়া আছে। ঘাস যাতে উপড়ে না চলে আসে, তার জন্যই এই নীতি নিয়ে রেখেছে উইম্বলডন কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এখন নানা জায়গা থেকে দাবি উঠেছে, এই নিয়ম তুলে দেওয়া হোক। গ্রিপ যাতে মজবুত হয়, সেরকম জুতো পরার অনুমতি দেওয়া হোক।

জোকোভিচ আবার বলছেন, এ বার তাঁর পা হড়কানোর কারণটা অন্য। সেটা হল, দীর্ঘদিন ঘাসের কোর্টে না খেলা। তাঁর মতে, করোনার জন্য গত বছর উইম্বলডন বাতিল হয়ে যাওয়ায় খেলোয়াড়রা ঘাসের কোর্টে খেলার অভ্যাস হারিয়ে ফেলেছেন। সেই কারণেই এ বার এত সমস্যা হচ্ছে। এমনকি, সেরিনার ছিটকে যাওয়ায় তাঁকে আলাদা করে ভয় ধরাতে পারেনি বলে জানিয়েছেন তিনি। তাই যতই ঘাস নিয়ে তোলপাড় হোক, অন্তত তিনি ফোকাস হারাচ্ছেন না। বলেছেন, ‘‘আশা করব, প্রতিযোগিতা যত এগোবে, পা হড়কাবে কম। আর যতক্ষণ জিতছি, দু’-একবার পড়ে গেলেও সেটা নিয়ে আর মাথা ঘামাচ্ছি না।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement