ফের বদল হল বিধাননগরের নগরপাল। এ নিয়ে চার দিনে চার বার রদবদল হল।

ভোট পর্বে নির্বাচন কমিশন বিধাননগরের পুলিশ কমিশনার জ্ঞানবন্ত সিংহকে সরিয়ে দিয়েছিল।নির্বাচনী আচরণবিধি উঠে যেতেই রবিবার রাতে জ্ঞানবন্তকে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়। পরের দিনই রাজ্য পুলিশের এডিজি আইন-শৃঙ্খলার পদের দায়িত্ব দেওয়া হয় তাঁকে। বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের সিপি করা হয় নিশাত পারভেজকে। তিনি ছিলেন সিআইডি-র ডিআইজি (অপারেশন)। ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতে নিশাত পারভেজকে সরিয়ে দেওয়া হয়। নতুন দায়িত্ব পান ভরতলাল মিনা। বুধবার ফের বদল হল সিপি। এ বার বিধাননগরের সিপি পদের দায়িত্ব আনা হল লক্ষীনারায়ণ মিনাকে।

একই সঙ্গে কয়েকজন আইএএস অফিসারেরও রদবদল করা হয়েছে। সঞ্জয় বনসলকে দার্জিলিঙের ডিএম করা হয়েছে। তিনি ছিলেন কেএমডিএ-এ সিইও। ওই পদে আনা হয়েছে অন্তরা আচার্যকে। তিনি ছিলেন উত্তর ২৪ পরগনার জেলাশাসক। আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক হলেন সুরেন্দ্রকুমার মিনা।

আরও পড়ুন: সাড়ে ৯ ঘণ্টা জেরা শেষে ছাড়া পেলেন অর্ণব, ফের হাজিরা কাল সকালে​

আরও পড়ুন: ঘরছাড়া তৃণমূল কর্মীরা, অভিযোগ তুলে নৈহাটি পুরসভার সামনে ধর্নায় বসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা​

বিধাননগরে চার দিনে চার বার পুলিশ কমিশনার বদল নিয়ে ইতিমধ্যেই পুলিশ মহলে গুঞ্জন শুরু হয়েছে।ভরতলাল মিনাকে শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের সিপি করা হয়েছে। ওই পদে মঙ্গলবারই দায়িত্বে আনা হয়েছিল গৌরব শর্মাকে। ফের তাঁকে বদলি করা হল এ দিন। তিনি গেলেন হাওড়া পুলিশ কমিশনারেটের সিপি পদে। একই ভাবে জলপাইগুড়ির এসপি পদে আসীন হয়ে ছিলেন তথাগত বসু। তিনিও এ দিন ফের বদলি হলেন। তথাগত বসুকে করা হল সুন্দরবন পুলিশ জেলার এসপি। কালিম্পঙের এসপি পদে বদলি হলেও, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁকে নতুন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি জলপাইগুড়ির এসপি পদে এলেন। সুন্দরবন পুলিশ জেলার এসপি হয়েছিলেন মঙ্গলবার। এ দিন তিনি বদলি হয়ে হাওড়া (গ্রামীণ)-এ এসপি হলেন। হাওড়ার সিপি তন্ময় রায়চৌধুরীকে দেওয়া হয়েছে ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের দায়িত্ব। ব্যারাকপুরের সিপি ডিপি সিংহকে পাঠানো হয়েছে আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের পদে।