• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দরিদ্র মেয়েদের স্বাস্থ্যরক্ষা ও পড়াশোনার পথে সাহায্যের হাত টিসিএফ-এর

TCF
হাবড়া ও হোতারে টিসিএফ ছাত্রীদের বিনামূল্যে কোচিং করিয়ে থাকে।

নারীসুরক্ষা মানে কিন্তু কেবল কন্যাভ্রূণহত্যা রোধ নয়। বরং নারীর উন্নত জীবন ও বিকাশের পথে সুস্বাস্থ্যের কথাও মাথায় রাখতে হবে বইকি! সে পথেই মেয়েদের আর একটু সচেতন করতে এগিয়ে এল টরন্টো ক্যালকাটা ফাউন্ডেশন (টিসিএফ) নামের এক অসরকারি সংস্থা।

২০২০-তে দাঁড়িয়েও ঋতুচক্রের সময় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মেয়েরা নানা অস্বাস্থ্যকর ব্যবস্থা অবলম্বন করেন।স্যানিটারি ন্যাপকিনের বদলে অন্যান্য সস্তা কাপড় ব্যবহারের চল তো আছেই, এর সঙ্গে যোগ হয় নানা মিথ ও দুর্ভাবনা। আজও এই জৈবিক কারণে নানা ক্ষেত্রে মেয়েরা সামাজিক লজ্জার মুখোমুখি হন।

আরও পড়ুন: নির্ভয়া কাণ্ডের চার দণ্ডিতের ফাঁসি আলাদা ভাবে? মঙ্গলবার শুনানি সুপ্রিম কোর্টে​

সকলের আগে এই সব ট্যাবুর বিরুদ্ধে জনমত তৈরি করা ও মেয়েদের পড়াশোনার পাশাপাশি স্বাস্থ্যের পাঠও তাঁদের হাতে তুলে দিতেই টিসিএফ এক বিশেষ প্রকল্প নিল। মূলত আর্থ-সামাজিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মেয়েদেরই এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সম্প্রতি উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনার হোতার ও কলকাতার বোড়ালে এই প্রকল্প রূপায়িত করে।

হাবড়া ও হোতারে টিসিএফ ছাত্রীদের বিনামূল্যে কোচিংও করিয়ে থাকে। সেখানকারই নবম থেকে একাদশ শ্রেণির ৮৬ জন ছাত্রী এই প্রকল্পে অংশ নেয়। তাদের প্রত্যেকের জন্য প্রতি মাসে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন পৌঁছে দেওয়ার কথা ভেবেছে টিসিএফ।

আরও পড়ুন: করোনাভাইরাস নিয়ে সতর্ক করে পড়েছিলেন সরকারি কোপে, চিনে মৃত্যু সেই ডাক্তারের​

পিরিয়ডের সময় প্রয়োজনীয় ডায়েট, সাবধানতা ও ভুল ধারণা ভেঙে স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের পথে তাদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার এক কর্মশালাও অনুষ্ঠিত হয়।বোড়ালের কর্মশালায় অংশ নেন ১৭ থেকে ৩৫ বছর বয়সি ২৮ জন মহিলা। তাঁরা প্রত্যেকেই টিসিএফের উদ্যোগে তৈরি বৃত্তিমূলক সেলাই স্কুলের ছাত্রী। পিরিয়ড যে আদৌ ভয় বা লজ্জার কোনও বিষয় নয় এবং কোন জৈবিক কারণে এমনটা হয়, তার সবিস্তার আলোচনাও হয়।

টিসিএফের পক্ষ থেকে এই অনুষ্ঠানগুলিতে হাজির ছিলেন সংস্থার বোর্ড ডিরেক্টর তপন মজুমদার, চিত্রা ঘোষও কানাডার চিকিৎসক তিস্তা সোমন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন