শুরু হতে চলেছে ভিন্নধর্মী ধারাবাহিক ‘জাহানারা’। সেখানে জাহানারার দিদি রুবিনার চরিত্রে দেখা যাবে পায়েল দে-কে। বিরতি নিয়ে ফের ছোট পর্দায় ফিরছেন তিনি। জাহানারার চরিত্রে শ্বেতা মিশ্র। নাটকে অভিনয়ের হাতেখড়ি শ্বেতার। এটিই তাঁর প্রথম ধারাবাহিক। ‘‘জাহানারার চরিত্রটি এক সাহসী মেয়ের। সে আইনের ছাত্রী। যারা তিন তালাকের শিকার, সেই সমস্ত নারীর পাশে দাঁড়ায় জাহানারা,’’ বললেন শ্বেতা। প্রথম ধারাবাহিকেই এ রকম সাহসী চরিত্র করতে ভয় করল না? ‘‘প্রথম বার চিত্রনাট্য শুনে মনে দ্বন্দ্ব ছিল। কিন্তু গল্পে কোনও ধর্মকে আঘাত করা হয়নি। মানুষের তৈরি কিছু নিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকে তুলে ধরা হয়েছে মাত্র। দর্শকের কাছে অনুরোধ, আপনারা অবশ্যই সিরিয়ালটা ভাল করে দেখুন,’’ বললেন শ্বেতা। পায়েলের বক্তব্য, ‘‘একদম ভিন্নধর্মী একটি চরিত্রে অভিনয় করছি। রুবিনার চরিত্রের জন্য সমস্ত পোশাক-আশাকগত প্রশিক্ষণ প্রাথমিক ভাবে ইউটিউব থেকেই শিখেছি।’’

ধর্মের আচার-আচরণ নিয়ে দুই সম্ভ্রান্ত পরিবারের মধ্যে বেজায় ফারাক। জাহানারা ও রুবিনার বাবা নিজামউদ্দিন শেখ রক্ষণশীল নয়। সে প্রগতিশীল। সেই ভাবধারায় বড় হয়েছে রুবিনা ও জাহানারা। রুবিনা মুর্শিদাবাদের একটি স্কুলে পড়ায়। সে বোনের মতো শান্ত, প্রতিবাদী নয়। তাই বাবা ও বোনকে নিয়ে তার দুশ্চিন্তার অন্ত নেই। এই ধারাবাহিকের কর্মকর্তাদের মতে, এটা একেবারেই নতুন ভাবনা।

এ বার দেখার, দর্শকের কাছে কতটা গ্রহণযোগ্য হয় ধারাবাহিকটি। এটির সম্প্রচার শুরু হবে জুলাই মাসের মাঝামাঝি।