Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Mid Day Meal

অঙ্গনওয়াড়ির খাবারে পোকা, নালিশ আমডাঙায়

এ দিন অভিভাবকেরা বিক্ষোভ দেখান কেন্দ্রের সামনে। পরে শিক্ষিকা সবিতার ঢালির বাড়িতে যান। সেখানে চাল-ডালের বস্তা দেখতে পান তাঁরা।

চলছে অঙ্গনারি কেন্দ্রে রান্না।

চলছে অঙ্গনারি কেন্দ্রে রান্না। — ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
আমডাঙা শেষ আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ০৯:৪২
Share: Save:

অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে শিশুদের খাবারের গুণমান নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিক্ষোভ দেখালেন কিছু অভিভাবক। মঙ্গলবার সকালে আমডাঙা ব্লকের বেড়াবেড়িয়া পঞ্চায়েতের গুমা এলাকার সুসংহত শিশু বিকাশ সেবা প্রকল্পের ১৩৮ নম্বর অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের ঘটনা। অভিযোগ, খিচুড়িতে ডাল কম ছিল। সয়াবিন পোকাধরা। আধসিদ্ধ খাবার শিশুদের পরিবেশন করা হয় বলেও অভিযোগ। খাবার খেয়ে এর আগে শিশুরা অসুস্থ হয়েছে বলেও অভিযোগ।

এ দিন অভিভাবকেরা বিক্ষোভ দেখান কেন্দ্রের সামনে। পরে শিক্ষিকা সবিতার ঢালির বাড়িতে যান। সেখানে চাল-ডালের বস্তা দেখতে পান তাঁরা। ওই চাল-ডাল কেন্দ্রের বলেই অভিযোগ। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে পালিয়ে যান শিক্ষিকা।

অভিভাবক সীমা হাজারি বলেন, ‘‘এখানে ৩৪ শিশু আসে। ভাত ঠিকমতো সিদ্ধ হয় না। খাবারে পোকা থাকে। আজ সয়াবিন থেকে পোকা বেরিয়েছে। এ সব খেলে শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়বে।’’ এর আগেও প্রতিবাদ জানিয়ে কাজ হয়নি বলে অভিযোগ ওই অভিভাবকদের।

বিডিও সৌমেন বণিক বলেন, ‘‘গত সপ্তাহেই পরিদর্শন হয়েছিল ওই কেন্দ্রে। তখন এ রকম কিছু পাওয়া যায়নি। আমরা খাবার পরীক্ষা করেছিলাম। কিন্তু শুনলাম, যে সয়াবিন দেওয়া হয়েছিল, তা ভাল নয় এমন হয়ে থাকলে আমরা উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।’’

অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের খাবার শিক্ষিকার বাড়িতে মজুত করার অভিযোগ প্রসঙ্গে বিডিও বলেন, ‘‘আগে এমনটা শুনিনি। খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কেন্দ্রের মালপত্র সেখানেই রাখতে হবে।’’

সবিতার স্বামী সুনীল ঢালি পরে বলেন, ‘‘সরকার থেকে যে ধরনের খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়, সেটাই রান্না করা হয়। আমাদের কিছু করার নেই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE