Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

চাকরি দেওয়ার নামে টাকা তোলায় অভিযুক্ত নেতা

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাবড়া ২১ মার্চ ২০১৯ ০৩:৪৭
অনুতোষ বিশ্বাস

অনুতোষ বিশ্বাস

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরি দেওয়ার নাম করে যুবকদের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠল এক বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি হাবড়া থানার ফুলতলা এলাকার। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের নাম অনুতোষ বিশ্বাস। বাড়ি ফুলতলায়। তাঁর বিরুদ্ধে ১০ মার্চ হাবড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ‘প্রতারিত’ যুবক মনোজ বিশ্বাস। তাঁর বাড়ি নদিয়ার হাঁসখালি থানার বগুলায়। পুলিশের এক কর্তা বলেন, ‘‘অনুতোষকে নোটিস পাঠিয়ে ১৮ মার্চ থানায় আসতে বলা হয়েছিল। তিনি আসেননি। তাঁর খোঁজে তল্লাশি চলছে।’’

এ দিকে লোকসভা ভোটের আগে অনুতোষের নামে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ ওঠায় রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়েছে।

Advertisement

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অনুতোষ বাদুড়িয়ার একটি প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকতা করেন। ফুলতলা এলাকায় বিজেপি নেতা হিসাবে পরিচিত। থানায় লিখিত অভিযোগে মনোজ জানিয়েছেন, ২০১৫ সালে বারাসতের একটি উচ্চ প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা দিতে গিয়ে তাঁর সঙ্গে অনুতোষের পরিচয় হয়। সেই সূত্রে অনুতোষ জানান, তাঁর সঙ্গে কিছু লোকের পরিচয় রয়েছে, যারা টাকার বিনিময়ে স্কুলে চাকরির ব্যবস্থা করে দেয়। অভিযোগ, মনোজকেও চাকরি দেওয়ার টোপ দেন অনুতোষ।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

মনোজ বলেন, ‘‘চাকরির জন্য আমি ও আরও দু’জন অনুতোষের বাড়ি গিয়ে ৬ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা হাতে করে দিয়ে আসি। কিন্তু বহু দিন হয়ে গেলেও অনুতোষ আমাদের চাকরির ব্যবস্থা করে দিতে পারেননি। টাকা ফেরতও দিচ্ছিলেন না।’’

মনোজ পুলিশকে জানিয়েছেন, অনুতোষ ফোন ধরা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। সম্প্রতি তাঁর বাড়িতে গিয়ে দেখা করে টাকা ফেরত চাইলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেন।

মনোজ পেশায় গৃহশিক্ষকতা করেন। ধারদেনা করে টাকা অনুতোষকে দিয়েছিলেন বলে জানালেন। তাঁর কথায়, ‘‘ধারের টাকার সুদ দিতে হচ্ছে এখন। অনুতোষ হুমকি দিয়ে জানিয়েছেন, টাকার কথা কাউকে জানালে মেরে ফেলবেন।’’

কী বলছে বিজেপি?

দলের বারাসত সাংগঠনিক জেলার সহ সভাপতি বিপ্লব হালদার বলেন, ‘‘অনুতোষ আমাদের দলের কর্মী। পঞ্চায়েত ভোটে এলাকায় সক্রিয় ভাবে কাজ করেছেন। ওঁর সঙ্গে আমরাও যোগাযোগ করতে পারছি না। অভিযোগের পিছনে তৃণমূলের হাত রয়েছে।’’

তৃণমূলের হাবড়া ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অজিত সাহা বলেন, ‘‘এটাই বিজেপির লোকজনের প্রকৃত চরিত্র। অনুতোষের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন প্রতারিতেরা। আমরা ঘটনা জানতামও না। আইন আইনের পথে চলবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement