Advertisement
০৮ ডিসেম্বর ২০২২
TMC

TMC: তদন্তের ভার পেয়েই পানিহাটি গেল সিআইডি টিম, ১০ দিনের পুলিশ হেফাজতে ধৃত ‘ঘাতক’

পানিহাটি ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সোম বার সকাল থেকেই ছিল চাপা উত্তেজনা। স্থানীয় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকেরা সকালে ফের বিটি রোড অবরোধ করেন।

পানিহাটিতে তৃণমূল কাউন্সিলর খুনের ঘটনার তদন্তে সিআইডি।

পানিহাটিতে তৃণমূল কাউন্সিলর খুনের ঘটনার তদন্তে সিআইডি। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
খড়দহ শেষ আপডেট: ১৪ মার্চ ২০২২ ১৮:৫৬
Share: Save:

পানিহাটি পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর অনুপম দত্তকে খুনের ঘটনার তদন্তভার পেয়েই ঘটনাস্থলে গেল সিআইডি-র তদন্তকারী দল। সোমবার দুপুরে সিআইডি-এর পাঁচ জন তদন্তকারী পানিহাটি গিয়ে ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেন।

অন্য দিকে, অনুপম দত্ত খুনের ঘটনার ধৃত ‘আততায়ী’ অমিত পণ্ডিত ওরফে শম্ভুকে সোমবার ব্যারাকপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক ১০ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। পুলিশের তরফ থেকে আদলতে ১০ দিনের পুলিশ হেফাজতের আবেদন জানানো হয়েছিল। বিচারক তা মঞ্জুর করেন।

Advertisement

পানিহাটি ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সোম বার সকাল থেকেই ছিল চাপা উত্তেজনা। স্থানীয় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকেরা সকালে ফের বিটি রোড অবরোধ করেন। পুলিশ সূত্রের খবর, অনুপমকে খুন করার জন্য নদিয়ার হরিণঘাটার বাসিন্দা শম্ভুকে ভাড়া করা হয়েছিল। তাঁকে জেরা এই খুনে আরও কারা জড়িত, তা জানার চেষ্টা চলছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকার জনপ্রিয় তৃণমূল নেতার খুনের সঙ্গে কোনও রাজনৈতিক যোগসূত্র আছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে সিআইডি-র তদন্তকারী অফিসারেরা।

রবিবার রাতে অনুপমের খুনের পরেই আততায়ী শম্ভুকে তাড়া করে অদূরের জলাজমির হোগলাবন থেকে পাকড়াও করেছিল জনতা। সোমবার আগরপাড়া স্বাস্থ্যকেন্দ্র লাগোয়া ওই হোগলাবন থেকে মোবাইল ফোন এবং ট্রেনের টিকিট উদ্ধার করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মেমারি থেকে শেওরাফুলির রিটার্ন টিকিটটি রবিবার দুপুর ২টো ৫০-এ কাটা হয়েছে। মোবাইলটি খোলা অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে। তাতে কোনও সিম নেই। মোবাইল এবং তার ব্যাটারি আলাদা ভাবে পড়ে ছিল।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.