Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

২১ জুলাইয়ের আগের রাতে হাবড়ায় তৃণমূল নেতার দিকে গুলি! গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের তত্ত্ব অভিযুক্ত বিজেপি-র

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাবড়া ২১ জুলাই ২০২১ ১২:০২
তৃণমূল নেতা রাজীব সরকারকে লক্ষ্য করে গুলিচালনার অভিযোগ  উঠেছে।

তৃণমূল নেতা রাজীব সরকারকে লক্ষ্য করে গুলিচালনার অভিযোগ  উঠেছে।
—নিজস্ব চিত্র।

২১ জুলাই শহিদ দিবস কর্মসূচির আগের রাতে হাবড়ায় এক তৃণমূল নেতাকে লক্ষ্য করে গুলিচালনার অভিযোগ বিজেপি-র বিরুদ্ধে। তৃণমূলের ওই নেতার দাবি, গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান তিনি। উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় এই ঘটনাকে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফল বলে পাল্টা দাবি করেছেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। যদিও মঙ্গলবার রাতে তৃণমূল নেতাকে লক্ষ্য করে আদৌ গুলি চালনো হয়েছে কি না, তা স্পষ্ট নয়। ঘটনার তদন্তে নেমেছে হাবড়া থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, হাবড়া থানার হাটথুবা ঘোষপাড়া এলাকার মঙ্গলবার রাত ৮টা নাগাদ স্থানীয় তৃণমূল নেতা রাজীব সরকারকে লক্ষ্য করে গুলিচালনার অভিযোগ উঠেছে। তবে ওই ঘটনা নিয়ে রাতে হাবড়া থানায় কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

তৃণমূলের দাবি, ২১ জুলাই শহিদ দিবসে বিজেপি ছেড়ে প্রায় দেড়শো জনের তৃণমূলে যোগদান করার কথা ছিল। এ নিয়ে হাবড়া পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে এক তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে বৈঠক চলছিল। বৈঠক চলাকালীন দলীয় নেতা রাজীব সরকারের ফোন এলে তাতে নেটওয়ার্ক সমস্যা হওয়ায় তিনি ওই বাড়ির বাইরে বার হন। সামনের রাস্তায় ফোনে কথা বলতে বলতে হাঁটতে থাকার সময় তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চলে। রাজীবের অভিযোগ, সে সময় উল্টো দিকের মাঠের ঝোপ থেকে এক যুবক বেরিয়ে এসে রিভলবার বার করে গুলি চালায়। তবে তাকে বন্দুক বার করতে দেখে সঙ্গে সঙ্গে ছুটে ঘরের ভিতরে ঢুকে যান তিনি। যার জেরে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় গুলি। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় হাবড়া থানার পুলিশবাহিনী।

Advertisement

এই ঘটনার পিছনে বিজেপি-র হাত রয়েছে বলে দাবি রাজীবের। তিনি বলেন, ‘‘আমার অনুমান, বিজেপি-ই এর পিছনে রয়েছে।’’ তাঁর দাবি, ‘‘বিধানসভা ভোটের আগে থেকেই বিজেপি বহু লোকের মারফত আমাকে হুমকি দিচ্ছিল। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের উপরেই এলাকার মানুষ আস্থা রাখছেন। এটা ওরা সহ্য করতে পারছে না। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের ক্ষুদ্র সৈনিক বলেই আমাকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।’’ গুলিচালানার ঘটনায় আতঙ্কিত হওয়ায় রাতে থানায় অভিযোগ করেননি বলেই দাবি রাজীবের। তবে বুধবার সকালে এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তৃণমূলের অভিযোগ মানতে নারাজ স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। দলের নেতা বিপ্লব হালদার বলেন, ‘‘তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলেই এ ধরনের ঘটনা। এর সঙ্গে বিজেপি কোনও ভাবেই যুক্ত নয়।’’

পুলিশ ঘটনার তদন্তে নামলেও আদৌ রাজীবকে লক্ষ্য করে গুলি চলেছে কি না, তা স্পষ্ট নয়।

আরও পড়ুন

Advertisement