Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

TMC: শাসকদলের নেতার বিরুদ্ধে থানায় গেলেন মন্ত্রী, নেতা বললেন, উনি একটি কুলাঙ্গার

নিজস্ব সংবাদদাতা
বসিরহাট ২০ জুলাই ২০২১ ২২:৪২


ফাইল চিত্র।

সন্দেশখালিতে তাঁর উপর হামলার অভিযোগ তুলে তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের গ্রেফতারের দাবি তুললেন রাজ্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। জানালেন, ত্রাণ দিতে গিয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতা শাহজাহানের হাতে নিগৃহীত হওয়ার কথা তিনি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও জানিয়েছেন। দ্রুত শেখ শাহজাহানের গ্রেফতারের দাবি নিয়ে মঙ্গলবার তিনি গিয়েছিলেন বসিরহাট পুলিশ জেলার এসপি-র কাছে। তিনি একটি এফআইআর-ও দায়ের করেছেন। যদিও এই প্রসঙ্গে শাহজাহান বলেছেন, ‘‘এ প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য করব না। উনি কুলাঙ্গার।’’

সম্প্রতি সন্দেশখালির ন্যাজাট থানার সরবেড়িয়ায় ইয়াস-দুর্গতদের ত্রাণ দিতে গিয়ে নিগৃহীত হন সিদ্দিকুল্লা। অভিযোগ, গাড়িতে থাকা প্রায় ৪০০ জনের ত্রাণ সামগ্রী লুঠ করা হয়। মন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সচিব ও গাড়ির চালককে মারধর করা হয়। সিদ্দিকুল্লার অভিযোগ, ঘটনার পিছনে রয়েছেন সন্দেশখালি ব্লকের তৃণমূল সভাপতি শেখ শাহজাহান। এই বিষয়ে পুলিশের কাছে শাহজাহানের বিরুদ্ধে মন্ত্রী অভিযোগ করার পর চার দিন কেটে গেলেও প্রশাসন কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ায় মঙ্গলবার তিনি সোজা বসিরহাট এসপি অফিসে যান। পুলিশ সুপারের সঙ্গে দেখা করে শাজাহানের নামে এফআইআর করেন।

Advertisement

পরে সিদ্দিকুল্লা বলেন, ‘‘ত্রান দিতে যাওয়ার সময় আমাকে ও আমার লোকজনদের পুলিশের সামনে শাহজহানের লোকজন মারল। অথচ পুলিশ এখনও নীরব দর্শক! অভিযোগ করার পরেও প্রশাসন কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ায় বাধ্য হয়ে আজ বসিরহাটের এসপির কাছে এসে অভিযোগ জানাতে হল।’’ এই সব নেতা-দুষ্কৃতীরা তৃণমূলকে কলুষিত করছে বলে তাঁর মত।

এ বিষয়ে রাজ্যের বনমন্ত্রী তথা উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূলের সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেছেন, ‘‘সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী আমাদের পুরনো একজন সৈনিক। যে সমস্যাটাই হোক না কেন, আমরা বসে মিটিয়ে নেব।’’

আরও পড়ুন

Advertisement