Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২
Ashoknagar

দলের একাংশের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন অশোকনগরের তৃণমূল চেয়ারম্যান

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালে প্রবোধ ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে তফসিলি জাতি ও উপজাতি আইনের আওতায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছিল।

 অশোকনগর পুরসভার তৃণমূল চেয়ারম্যান প্রবোধ সরকার।

অশোকনগর পুরসভার তৃণমূল চেয়ারম্যান প্রবোধ সরকার। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
অশোকনগর শেষ আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০২২ ১৯:০৯
Share: Save:

দলের একাংশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর পুরসভার তৃণমূল চেয়ারম্যান প্রবোধ সরকার। দলীয় কোনও নেতা-নেত্রীর নাম না করে তাঁর অভিযোগ, ওই একাংশের মদতেই তাঁকে বারংবার আইনি জটিলতায় পড়তে হচ্ছে। যদিও অশোকের এই অভিযোগের পাল্টা হিসাবে তাঁর বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন অশোকনগরের প্রাক্তন বিধায়ক তথা বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ধীমান রায়। এর জেরে অশোকনগরেও তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসে পড়েছে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালে প্রবোধ ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে তফসিলি জাতি ও উপজাতি আইনের আওতায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছিল। সেই মামলায় সম্প্রতি তাঁদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে বারাসতের বিশেষ আদালত।

Advertisement

মঙ্গলবার প্রবোধ সরকার ও তাঁর স্ত্রী আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়ে যায়। মামলার সরকারি আইনজীবী শ্যামলকান্তি দত্ত জানিয়েছেন, প্রবোধ এবং তাঁর স্ত্রীকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করে মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছে বারাসতের বিশেষ আদালত।

আদালত থেকে বার হয়ে দলের একাংশের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন প্রবোধ। কারও নাম না করে তাঁর দাবি, তৃণমূলের একাংশের বিরোধিতার জেরেই তাঁকে আইনি জটিলতায় পড়তে হয়েছে বলে দাবি প্রবোধের। যদিও অশোকনগরের প্রাক্তন বিধায়ক তথা বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ধীমান রায় এ অভিযোগ নস্যাৎ করেছেন। তাঁর পাল্টা দাবি, ‘‘প্রবোধবাবু আসলে নিজে ডিক্টেটরশিপ চালান। কোনও বিষয়ে কারও সঙ্গে আলোচনা করেন না। কারা ওঁর বিরোধিতা করছেন, সেটা প্রকাশ্যে আনুন। তা হলে বিষয়টি নিয়ে বলতে পারব।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.