×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

রেলপাড়ের ৫০ জন দলে, বিজেপির দাবি ঘিরে তরজা

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল২৬ নভেম্বর ২০২০ ০৮:০৫
আসানসোলে বিজেপির কর্মসূচি।  বুধবার। নিজস্ব চিত্র

আসানসোলে বিজেপির কর্মসূচি। বুধবার। নিজস্ব চিত্র

ফের রাজনীতির চর্চায় আসানসোল উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের রেলপাড়। সৌজন্যে, সেখানকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষের বিজেপিতে ‘যোগদান’। আর এই দাবিকে কেন্দ্র করে বিজেপি-তৃণমূল তরজা শুরু হয়েছে আসানসোলে। তবে স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটক বলেন, ‘‘বিজেপি নানা দাবি করে। তাতে কিছু যায় আসে না।’’

বুধবার সকালে আসানসোলের কোর্ট মোড় এলাকায় বিজেপির ‘চায়ে পে চর্চা’ কর্মসূচি আয়োজিত হয়। সেখানে যোগ দেন দলের রাজ্য সহ-সভাপতি রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়, পশ্চিম বর্ধমান জেলা সভাপতি লক্ষ্মণ ঘোড়ুই-সহ অন্য নেতারা। লক্ষ্মণবাবু বলেন, ‘‘আজ রেলপাড়ের ৫০ জন সংখ্যালঘু মানুষ বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। শুধু রেলপাড় থেকেই ভোটের আগে ১৮ হাজার সংখ্যালঘু মানুষ আমাদের দলে আসবেন!’’ বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, তৃণমূল এলাকায় উন্নয়ন করতে ব্যর্থ। তাই মানুষ তাঁদের দিকে আসছেন।

এলাকার রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ মনে করিয়ে দিচ্ছেন, কিছু দিন আগে রেলপাড়ের তিন বিদায়ী তৃণমূল কাউন্সিলর গোলাম সরওয়ার, ওয়াসিমুল হক ও হাজি নাসো এলাকার উন্নয়নের ‘খামতি’র অভিযোগ করে এবং ‘মজলিস-ই ইত্তেহাদুল মুসলিমিন’-এর (এমআইএম) ভোট কাটাকাটির সম্ভাবনা থেকে দলকে ‘বাঁচাতে’ এই কেন্দ্রে সংখ্যালঘু প্রার্থী দাবি করেছিলেন। তা নিয়ে জলঘোলাও হয়েছিল স্থানীয় রাজনীতিতে। এ দিনের ‘দলবদল’ বা লক্ষ্মণবাবুর দাবির সঙ্গে ওই ঘটনার কোনও প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ যোগসূত্র আছে কি না, সে বিষয়েও জল্পনা ছড়িয়েছে এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের মধ্যে। তবে ওয়াসিমুল এ দিন বলেন, ‘‘আমরা এলাকার সামগ্রিক উন্নয়নের স্বার্থেই যা বলার বলেছি। বিজেপি-র পথ কখনও ঠিক হতে পারে না।’’

Advertisement

তবে বিজেপির দাবিকে একেবারেই আমল দিতে চাননি তৃণমূলের জেলা সভাপতি জিতেন্দ্র তিওয়ারি। বলেন, ‘‘রেলপাড়ে গত দশ বছরে যা উন্নয়ন হয়েছে, তা অভূতপূর্ব। বিজেপি দিবাস্বপ্ন দেখলেও, সংখ্যালঘু মানুষ আমাদের সঙ্গেই রয়েছেন।’’

পাশাপাশি, এ দিন তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে ‘অবৈধ’ কয়লা ও বালির কারবারিদের যোগাযোগের অভিযোগ প্রসঙ্গে ফের সরব হন রাজুবাবু। যদিও জিতেন্দ্রবাবু বলেন, ‘‘বিজেপি ভিত্তিহীন অভিযোগ করে জমি তৈরি করতে চাইছে। ওদের কোনও কথার উত্তর দিতেই

রুচিতে বাধে।’’

Advertisement