×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

পানীয় জল নিয়ে দুই পাড়ার বিবাদ, উত্তেজনা ভাতারের গ্রামে

নিজস্ব সংবাদদাতা
ভাতার০৩ ডিসেম্বর ২০২০ ১৯:৫৩
গোলমাল থামাতে পুলিশ যায় গ্রামে। - নিজস্ব চিত্র

গোলমাল থামাতে পুলিশ যায় গ্রামে। - নিজস্ব চিত্র

সজল ধারা প্রকল্পের পানীয় জল বন্ধ থাকায় দুই পাড়ার মধ্যে বিবাদের জেরে উত্তেজনা ভাতারের বিঘড়া গ্রামে। বুধবার ভাতারের সাহেবগঞ্জ ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বিঘড়া গ্রামের পানীয় জল প্রকল্পের পাম্পে তালা লাগানোর জেরে গোলমাল শুরু হয়। এই নিয়ে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। খবর পেয়ে ভাতার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে জল প্রকল্প চালু হয়।

জানা গিয়েছে, ভাতারের বিঘড়া গ্রামে একটি সজলধারা প্রকল্পের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি পানীয় জল সরবরাহ হয়। ৫ জনের একটি বেনিফিসিয়ারি কমিটির মাধ্যমে এই প্রকল্পটি পরিচালিত হয় এবং পাম্প চালানোর দায়িত্বে আছেন গ্রামেরই বাসিন্দা বুদ্ধদেব সামন্ত। স্থানীয়দের বক্তব্য, বুধবার বুদ্ধদেব বাড়িতে না থাকায় তাঁর স্ত্রী লিপিকা সামন্ত পাম্প চালু করতে যান। কিন্তু তিনি যান বেশ কিছুটি দেরি করে। এর পরে ‌গ্রামের দাসপাড়ার বাসিন্দারা ওই মহিলাকে গালিগালাজ করেন বলে অভিযোগ। সে সব শুনে লিপিকা পাম্প চালু না করেই বাড়ি চলে যান। ফলে পানীয় জল সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

দাস পাড়ার বাসিন্দারা পানীয় জল না পেয়ে পাম্পের ঘরটিতে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এ নিয়ে মাঝেরপাড়ার সঙ্গে দাসপাড়ার বাসিন্দাদের গোলমাল শুরু হয়। দুই পাড়ার লোকজন জড়ো হলে উত্তেজনা চরমে পৌঁছায়। ঘটনাস্থলে ভাতার থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং জল-সরবরাহ স্বাভাবিক করে।

Advertisement
Advertisement