Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ডিপিএলে ফের কোন্দল তৃণমূলে

নিজস্ব সংবাদদাতা
দুর্গাপুর ২৯ মে ২০১৫ ০১:০৩
অশান্তি এড়াতে মোতায়েন পুলিশ। নিজস্ব চিত্র।

অশান্তি এড়াতে মোতায়েন পুলিশ। নিজস্ব চিত্র।

ফের আইএনটিটিইউসি-র গোষ্ঠীকোন্দল ঘিরে বৃহস্পতিবার সরগরম হল রাজ্য সরকারের বিদ্যুৎ উৎপাদন সংস্থা দুর্গাপুর প্রজেক্টস লিমিটেড (ডিপিএল)। আইএনটিটিইউসি-র এক গোষ্ঠীর কার্যালয় দখল করে নিল অপর গোষ্ঠী। কর্তৃপক্ষের কাছে নতুন কমিটির নামও জমা দিল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ আসে। তবে শেষ পর্যন্ত অশান্তি ছড়ায়নি।
দীর্ঘদিন ধরে ডিপিএলে আইএনটিটিইউসি-র দু’টি সংগঠন রয়েছে। শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের অনুমোদন দেওয়া ‘ডিপিএল এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন’ এবং পূর্ণেন্দু বসুর অনুমোদন দেওয়া ‘ডিপিএল ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন’। দু’টি সংগঠনের মধ্যে মাঝে-মাঝেই গোলমাল বাধে। বেশ কয়েক বার সংঘর্ষও হয়েছে। এমনকী, ডিপিএল ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সম্পাদক দেবদাস মজুমদারের অনুগামীদের সঙ্গে ওই সংগঠনেরই অন্যতম নেতা জয়ন্ত বন্দ্যোপাধ্যায়ের গোষ্ঠীর বিবাদও প্রকাশ্যে এসেছে বারবার। জানুয়ারির শুরুতে দুর্গাপুর সাংস্কৃতিক মেলা আয়োজনকে কেন্দ্র করে বিবাদ সাময়িক মেটে। নতুন পরিস্থিতিতে দেবদাসবাবু সরে দাঁড়াতে বাধ্য হন। মেলা কমিটির দায়িত্ব নেন তাঁর এক সময়ের অনুগামী আলোময় ঘরুই। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আলোময়বাবু কমিটির পূর্ণ তালিকা কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিয়ে জানান, এখন থেকে আইএনটিটিইউসি-র যাবতীয় কাজকর্ম তাঁরাই দেখবেন।

আইএনটিটিইউসি সূত্রের খবর, দিন কয়েকের মধ্যেই ফের বিবাদ শুরু হয়। আলোময়বাবুর কর্তৃত্ব মেনে নিতে অস্বীকার করেন সংগঠনের অনেকে। সেই দলে ছিলেন সংগঠনের নেতা জয়ন্তবাবুও। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার জয়ন্তবাবুরা আলোময়বাবুদের কার্যালয় দখল করে নেন। ডিপিএল কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া নতুন তালিকা অনুযায়ী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে থাকছেন জয়ন্তবাবু। তাঁর দাবি, উচ্চতর নেতৃত্বের নির্দেশ মেনে সব পক্ষ এক সঙ্গে বসে নতুন কমিটি গড়া হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘এখন থেকে শ্রমিক স্বার্থে আমরা একজোট হয়ে কাজ করব।’’ তাঁর দাবি, তৃণমূলের জেলা (শিল্পাঞ্চল) সভাপতি অপূর্ব মুখোপাধ্যায়ের উদ্যোগে সবাই একজোট হয়েছেন। ফের যাতে বিবাদ মাথাচাড়া না দিতে পারে সে জন্য সংগঠনের সব পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে নতুন কমিটি গড়া হয়েছে।

আইএনটিটিইউসি সূত্রে জানা গিয়েছে, নতুন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে রয়েছেন বিধায়ক তথা শহরের মেয়র অপূর্ববাবু। এ ছাড়া কার্যকরী সভাপতি আইএনটিটিইউসি-র জেলা সভাপতি প্রভাত চট্টোপাধ্যায়। প্রভাতবাবু জানান, অপূর্ববাবুর উদ্যোগে নতুন কমিটি চূড়ান্ত হয়েছে। অপূর্ববাবু বলেন, ‘‘দীর্ঘদিন ধরে ডিপিএলে একটি সমস্যা চলছিল। সমন্বয়ের অভাব দেখা যাচ্ছিল। সবার সঙ্গে কথাবার্তা বলে নতুন কমিটি গড়া হয়েছে। এক সঙ্গে শ্রমিক ও সংস্থার স্বার্থে কাজ করবে নতুন কমিটি।’’ তাঁর দাবি, আইএনটিটিইউসি-র অন্য সংগঠনটির পদাধিকারীরাও এক সঙ্গে এসেছেন। ওই সংগঠনের এক নেতা বলেন, ‘‘আমাদের পরিচিত মুখ সব অন্য সংগঠনে চলে গিয়েছে। তাই আমাদের ইউনিয়ন কার্যত অস্তিত্বের সঙ্কটে পড়েছে।’’

Advertisement

আলোময়বাবু অবশ্য এ ভাবে নতুন কমিটি তৈরি অর্থহীন বলে দাবি করেন। তাঁর বক্তব্য, ‘‘আমি এখন শহরে নেই। এই সময়ে কেউ যদি নতুন একটি কমিটি গড়ে জমা দেন, তার কী গ্রহণযোগত্যা রয়েছেয এগজিকিউটিভ কমিটির ২০ জন সদস্য আমাকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বেছে নিয়েছেন। তাই আজ যা হয়েছে তার কোনও মানে নেই।’’

আরও পড়ুন

Advertisement