Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

তাঁবু খাটিয়ে হুমকির নালিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
দুর্গাপুর ০৫ এপ্রিল ২০১৮ ০১:২৮
লাউদোহায়। —নিজস্ব চিত্র।

লাউদোহায়। —নিজস্ব চিত্র।

কোথাও ব্লক অফিস চত্বরেই ঘোরাফেরা করছে যুবকেরা। কোথাও আবার অফিসে যাওয়ার পথের পাশে সামিয়ানা খাটিয়ে বসে রয়েছে লোকজন। বিরোধী প্রার্থীরা মনোনয়ন দিতে গেলে হুমকি, ভয় দেখানো থেকে নিগ্রহ করছে তৃণমূল আশ্রিত ওই দুষ্কৃতীরা, অভিযোগ বিরোধীদের। যদিও তৃণমূলের দাবি, প্রার্থী খুঁজে না পেয়ে মিথ্যে অভিযোগ করছে বিজেপি এবং সিপিএম।

দুর্গাপুর-ফরিদপুর ব্লকে ব্লক অফিসের বাইরে সামিয়ানা খাটিয়ে বিরোধীদের বাধা দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। এই ব্লকে পঞ্চায়েতের মোট আসন ৮৮। বুধবার পর্যন্ত গোগলা পঞ্চায়েতের ১৩টি, লাউদোহা পঞ্চায়েতের ৪টি ও গৌরবাজার পঞ্চায়েতের একটি আসনে মনোনয়ন তুলেছেন তৃণমূল প্রার্থীরা। পঞ্চায়েত সমিতির ১৭টি আসনের মধ্যে তৃণমূল ৪টিতে মনোনয়ন তুলেছে। বিরোধীরা এখনও কোনও মনোনয়ন তোলেনি।

ব্লক অফিস থেকে খানিক দূরে লাউদোহা কালীতারা বিজয় ইনস্টিটিউশনের পাশে বাঁশের মাথায় নীল ত্রিপলের ছাউনি। পাশে তৃণমূলের পতাকা। ভিতরে চেয়ার নিয়ে বসে ২০-২৫ জন। বিরোধীদের অভিযোগ, তৃণমূলের ওই সব লোকজন বিরোধীদের ব্লক অফিসে ঢুকতে বাধা দিচ্ছে। সিপিএমের দাবি, ব্লক অফিসের গেটে তৃণমূলের লোকজন অন্য দলের কর্মীদের দাঁড় করিয়ে পরিচয়পত্র দেখছে। মনোনয়ন যাতে না তোলা হয় সে জন্য হুমকি দেওয়া হয়েছে। বুধবার মনোনয়ন তোলার জন্য চালান কাটতে ও জাতিগত শংসাপত্র জমা দিতে গিয়ে বাধার মুখে পড়তে হয় বলে সিপিএম কর্মীদের অভিযোগ।

Advertisement

সিপিএমের জেলা কমিটির সদস্য পঙ্কজ রায়সরকারের কথায়, ‘‘তৃণমূলের লোকজন ব্লক অফিসের সামনেই অস্থায়ী তাঁবু খাটিয়ে বসে আছে। পুলিশ-প্রশাসনের সামনেই এ সব হচ্ছে।’’ তৃণমূলের ব্লক নেতা সুজিত মুখোপাধ্যায় যদিও বলেন, ‘‘কাউকে বাধা দেওয়া হয়নি। রোদ থেকে বাঁচতে ত্রিপলের ছাউনি দেওয়া হয়েছে। দূরদূরান্ত থেকে দলের প্রার্থী, কর্মী-সমর্থকেরা আসছেন। গরমে তাঁরা ছাউনির তলায় জিরিয়ে নিচ্ছেন।’’ বিডিও শুভ সিংহরায় বলেন, ‘‘মনোনয়নের কাজ যেখানে হচ্ছে, সেখান থেকে দু’শো মিটার ও ব্লক অফিসের সীমানার একশো মিটারের মধ্যে এক সঙ্গে ৫ জনের বেশি লোক জমায়েত করতে দেওয়া হচ্ছে না। পুলিশ পাহারা রয়েছে।’’

অন্ডাল ব্লক অফিসের গেটের ভিতরে শাসকদলের লোকজন প্রতিদিন জড়ো হয়ে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ বিরোধীদের। জাতিগত শংসাপত্র জোগাড়ে বাধা, নথিপত্র জমা দিতে যাওয়ার পথে তা ছিঁড়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে শাসকদলের বিরুদ্ধে। তৃণমূলের জেলা কার্যকরী সভাপতি উত্তম মুখোপাধ্যায় অবশ্য বলেন, ‘‘আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। কাউকে বাধা দেওয়া হচ্ছে না। উল্টে, বুধবার কাঁকসায় আমাদেরই তিন সমর্থক আক্রান্ত হয়েছেন।’’



Tags:
Panchayet Election TMC BJPপঞ্চায়েত নির্বাচন

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement