Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শিক্ষায় ফেরা ব্রাত্যের কাছে শুরু দাবি-দরবার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১১ মে ২০২১ ০৭:০৮
শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ফাইল চিত্র।

শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ফাইল চিত্র।

আগেও এক বার শিক্ষামন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। সোমবার, রাজ্যের নতুন মন্ত্রিসভার শপথের দিনে আবার শিক্ষা দফতরের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ব্রাত্য বসুকে। এবং নতুন শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে ব্রাত্যবাবুর নাম ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে স্বাগত জানিয়ে নিজেদের দাবিদাওয়া জানাতে শুরু করেছেন শিক্ষক ও শিক্ষকপদ প্রার্থীরা। যাঁরা গত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন দাবিতে রাস্তায় নেমেছেন বার বার।

নিখিল বঙ্গ শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুকুমার পাইন বলেন, “দ্বিতীয় বার শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পরে ব্রাত্যবাবুর কাছে আবেদন জানাচ্ছি, স্কুল সার্ভিস কমিশনের (এসএসসি) মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া ধারাবাহিক ও স্বচ্ছ করা হোক।” পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নবকুমার কর্মকারের দাবি, বর্তমান শিক্ষক নিয়োগ পদ্ধতি সংশোধন করে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে।

মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ মিত্র চান, কোভিড সমস্যার সমাধানে রাজ্যের সব বিদ্যালয়কে সেফ হোম ও অক্সিজেন পার্লারের জন্য ব্যবহার করা হোক। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের স্বেচ্ছাসেবক করে কোভিড-পীড়িত পরিবারগুলির কাছে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সরবরাহের ব্যবস্থা হোক। মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির নেতা অনিমেষ হালদারের দাবি, শিক্ষক-শিক্ষাকর্মীদের পেশাগত সমস্যাগুলো দূরীকরণে অনলাইনে আবেদনের ভিত্তিতে বদলি চালু করতে হবে। দিতে হবে টিজিটি স্কেল। পার্শ্ব শিক্ষকদের ‘বঞ্চনার’ প্রতিকার হোক অবিলম্বে।

Advertisement

স্টেট এডেড কলেজ টিচারদের (স্যাক্ট) দাবি, রাজ্যের অন্তত ১৫,০০০ স্যাক্টের জন্য অপ্রকাশিত সরকারি নির্দেশনামা প্রকাশ করা হোক এবং তাঁদের নিয়ে প্রকাশিত সরকারি আদেশের নানা অসঙ্গতি মেটানোর জন্য আলোচনার ব্যবস্থা হোক। কুটাবের পক্ষে গৌরাঙ্গ দেবনাথ এ দিন জানান, শিক্ষক সংগঠনগুলির সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে বন্ধ কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ভবনে কোয়রান্টিন সেন্টার করা এবং ছাত্র-শিক্ষকদের মধ্য থেকে স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী তৈরির সিদ্ধান্ত নিতে পারে সরকার। ওয়েস্ট বেঙ্গল প্রাইমারি ট্রেন্ড টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের রাজ্য সভাপতি পিন্টু পাড়ুই বলেন, “বঞ্চিত পিটিটিআইদের নিয়োগ সংক্রান্ত সমস্যা, প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন সমস্যা মেটানো এবং টেট-উত্তীর্ণ প্রার্থীদের যাতে দ্রুত ও স্বচ্ছ ভাবে নিয়োগ করা হয়, সেই জন্য নতুন শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আবেদন জানাচ্ছি।”

আরও পড়ুন

Advertisement