×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

বাংলাদেশ পাচারের আগে বিপুল পরিমাণ ডলার উদ্ধার নদিয়া সীমান্তে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা২৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৮:৩৮
গ্রাফিক শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক শৌভিক দেবনাথ।

বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে জাল নোটের আড়ালে ডলারের অবৈধ লেনদেন শুরু হয়েছে। বুধবার নদিয়া লাগোয়া বাংলাদেশ সীমান্তে বিপুল পরিমাণ ডলার উদ্ধারের পর এমনটাই মনে করছে সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। তাদের মতে, ভারতীয় টাকার তুলনায় বাংলাদেশি টাকায় ডলারের মূল্য বেশি। সে কারণে এ দেশ থেকে বাংলাদেশ অবৈধ ভাবে ডলার পাচার হচ্ছে।

এ দিন সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে নদিয়ার বাঁশঘাটা (বর্ডার আউট পোস্ট)-য় ১ লক্ষ ১০ হাজার মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় যার অর্থমূল্য প্রায় ৭৮ লক্ষ ৩ হাজার ৪০০  টাকা) উদ্ধার করে বিএসএফ। তাদের দাবি, কাঁটাতারের এ পার থেকে ও পারে ডলার পাচারের  চেষ্টা হচ্ছিল। দু’তরফের পাচারকারীরা সক্রিয় ছিল সীমান্ত এলাকায়।

টহলদারির সময় এই পাচারের বিষয়টি বুঝতে পারে বিএসএফ। তারা সতর্ক হতেই বিপদ বুঝতে পেরে ডলার ফেলে দু’পারের পাচারকারীরা চম্পট দেয়। বিপুল পরিমাণ ডলার উদ্ধারের পর বিএসএফ কর্তারা মনে করছেন, নতুন কোনও পাচারকারী দল সক্রিয় হয়ে উঠেছে। জালনোটের আড়ালে এই পাচার চলছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সাম্প্রতিককালে সীমান্তে এত বিপুল পরিমাণ ডলার পাওয়া গেছে কি না, তা মনে করতে পারছেন না বিএসএফ কর্তারাও। বিএসএফের এক কর্তা জানিয়েছেন, এই পাচার চক্রের নেপথ্যে কারা রয়েছে, তা দেখা হচ্ছে। 

Advertisement



নদিয়া সীমান্তে উদ্ধার হওয়া ডলার। নিজস্ব চিত্র।

বিএসএফ সূত্রে খবর, এ দিন ওই এলাকায় ইন্দো-বাংলাদেশ বর্ডার রোডে কাছে জওয়ানরা লক্ষ্য করেন, কাঁটাতারের এ পার থেকে কিছু ও পারে পাচারের চেষ্টা করছে বেশ কয়েক জন। বিএসএফ জওয়ানরা ছুটে যেতেই তাঁরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। কাউকে আটক করা না গেলেও, একটি নীল রঙের পলিথিনে মোড়া প্যাকেট উদ্ধার করে বিএসএফ। সেই প্যাকেট খুলতেই দেখা যায়, বিপুল পরিমাণ ডলার রয়েছে।   

আরও পড়ুন: আপাতত কথা নয়, নোবেল জয়ের পর প্রথম বার কলকাতায় নিজের ঘরে ফিরে বললেন অভিজিৎ

আরও পড়ুন: গাছ কাটা নিয়ে ঝামেলা, কুলতলিতে কাকার হাতে খুন হলেন ভাইপো

Advertisement