×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

কমছে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা, সুস্থতার হার বৃদ্ধি, প্রবণতায় আশার আলো

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ নভেম্বর ২০২০ ২৩:১৯
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

দৈনিক আক্রান্তের থেকে দৈনিক সুস্থের সংখ্যা বেশি। গত কয়েক দিন চলতে থাকা এই প্রবণতা বজায় রইল বুধবারও। কিন্তু দুইয়ের মধ্যে ব্যবধান কমে একশোরও নীচে নেমে গেল এ দিন। তবে সু্স্থতার হার বেড়েছে। সংক্রমণের হার গত কালকেরও থেকে কমেছে এ দিন। সেই সঙ্গে কমেছে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও। সব মিলিয়ে রাজ্যের করোনা মানচিত্রে আশার ঝিলিক দেখতে পাচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্তারা।

রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত এ দিনের বুলেটিন অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত এ রাজ্যে মোট ৪ লক্ষ ৬৬ হাজার ৯৯১ জন করোনা আক্রান্ত। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬৭ জন। এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪ হাজার ৭৫২ জন, যা গত কালকের থেকেও কিছুটা কম।

Advertisement

এ দিনই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ৬০৫ জন। রাজ্যে এ দিনও নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ফের দৈনিক সুস্থের থেকে কম, ৩ হাজার ৫২৮ জন। তবে গত কালকের থেকে ব্যবধান কমেছে।

এ দিনই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ৬০৫ জন। রাজ্যে এ দিনও নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ফের দৈনিক সুস্থের থেকে কম, ৩ হাজার ৫২৮ জন। তবে গত কালকের থেকে ব্যবধান কমেছে।

(গ্রাফের উপর হোভার বা টাচ করলে প্রত্যেক দিনের পরিসংখ্যান দেখতে পাবেন।)

আরও পড়ুন: নজরদারিই সার, সুন্দরবনে নির্বিচারে চলছে ম্যানগ্রোভ ধ্বংস

আরও পড়ুন: সপ্তম পর্বের আনলকে নয়া করোনা নির্দেশিকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা, করোনা সংক্রমণের নিরিখে প্রথম থেকেই টক্কর চলছে এই দুই জেলার মধ্যে। এ দিন কলকাতায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৮০ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৬৫ জন। এ ছাড়াও হুগলিতে ২৭৯, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২৪১ এবং নদিয়ায় ২১৯ জনের করোনা ধরা প়ড়েছে এ দিন। হাওড়ায় ১৯৪ এবং কোচবিহারে ১৫০ জন নতুন করে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন এ দিন।

এ দিন রাজ্যে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৫১ জন। এর ফলে রাজ্যে মোট মৃত্যু হল ৮ হাজার ১৭২ জনের। এ দিন কলকাতায় ১৫, উত্তর ২৪ পরগনায় ১১ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া হাওড়ায় প্রাণ হারিয়েছেন ৫ জন।

এ দিন রাজ্যে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৫১ জন। এর ফলে রাজ্যে মোট মৃত্যু হল ৮ হাজার ১৭২ জনের। এ দিন কলকাতায় ১৫, উত্তর ২৪ পরগনায় ১১ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া হাওড়ায় প্রাণ হারিয়েছেন ৫ জন।

গত কাল রাজ্যে সুস্থতার হার ছিল ৯২.৮৮ শতাংশ। এ দিন তা কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৯২.৯৫ শতাংশ।

প্রতিদিন যে সংখ্যা কোভিড টেস্ট করা হয় এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত জনের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাকেই পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার বলে। এদিনের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য জুড়ে ৪৪ হাজার ৬৩১টি কোভিড টেস্ট হয়েছে। তার মধ্যে পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে সাড়ে ৩ হাজারের কিছুটা বেশি। ফলে শতাংশের নিরিখে সংক্রমণের হার বা ‘পজিটিভিটি রেট’ হল ৭.৯০ শতাংশ যা গত কালকের থেকে কিছুটা কম।

প্রতিদিন যে সংখ্যা কোভিড টেস্ট করা হয় এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত জনের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাকেই পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার বলে। এদিনের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য জুড়ে ৪৪ হাজার ৬৩১টি কোভিড টেস্ট হয়েছে। তার মধ্যে পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে সাড়ে ৩ হাজারের কিছুটা বেশি। ফলে শতাংশের নিরিখে সংক্রমণের হার বা ‘পজিটিভিটি রেট’ হল ৭.৯০ শতাংশ যা গত কালকের থেকে কিছুটা কম।

Advertisement