×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

এক দিনে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রাজ্যে, মৃত্যু ছাড়াল ৫,৫০০

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৯ অক্টোবর ২০২০ ২১:৫৪
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

রাজ্যে কোভিডে মৃত্যুর সংখ্যা ৫,৫০০ ছাড়িয়ে গেল। একই সঙ্গে ছাপিয়ে গেল দৈনিক সংক্রমণ আগের সব হিসেব। এই সংখ্যা উদ্বেগ বাড়িয়েছে প্রশাসনের।

শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রকাশিত স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘম্টায় নতুন করে ৩ হাজার ৫৭৩ জনের শরীরে নোভেল করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে, দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে যা সর্বোচ্চ। গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ৩ হাজার ৫২৬।

Advertisement

সবমিলিয়ে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ২ লক্ষ ৮৭ হাজার ৬০৩ জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। এই মুহূর্তে রাজ্যে মোট সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ২৯ হাজার ২৯৬, গতকালের চেয়ে যা ৪৪২ বেশি।

গ্রাফের উপর হোভার টাচ করলে দিনের পরিসংখ্যান দেখতে পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন: করোনা: ফের ভয় বাড়ছে রাজ্যে, কোন জেলার অবস্থা এখন কেমন​

করোনার প্রকোপে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে এক দিনে সর্বোচ্চ ৬৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। গতকালই বৃহস্পতিবারই ৬৩ জন প্রাণ হারান। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬২ জন করোনা রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এখনও পর্যন্ত ৫ হাজার ৫০১ জন প্রাণ হারিয়েছেন রাজ্যে।

এ দিন করোনার প্রকোপ কাটিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ৬৯ জন রোগী। ৫ অক্টোবর থেকে পর পর তিন দিন তিন হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে উঠলেও, বৃহস্পতিবারস সংখ্যাটা তিন হাজারের নীচে নেমে যায়। এ দিন ফের সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি।

মোট সংক্রমিতের সঙ্গে তুলনা করলে ২ লক্ষ ৫২ হাজার ৮০৬ জন রোগীই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তার ফলে রাজ্যে সুস্থতার হার দাঁড়িয়েছে ৮৭.৯০ শতাংশ। যদিও গতকাল রাজ্যে সুস্থতার হার ছিল ৮৭.৯৩ শতাংশ।

প্রতি দিন যত জন রোগীর কোভিড-টেস্ট করা হচ্ছে এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত জনের কোভিড-রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, তাকে পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার বলা হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২ হাজার ৫৩২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ দিন রেকর্ড সংখ্যক মানুষের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ায়, সংক্রমণের হার বেড়ে ৮.৪০ শতাংশ হয়েছে, গতকাল যা ৮.৩১ শতাংশ ছিল।

দৈনিক সংক্রমণ এবং মৃত্যুর নিরিখে বেশ কিছু দিন ধরেই এই মুহূর্তে একে অপরকে টেক্কা দিচ্ছে কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা। এ দিন দুই জেলাতেই ১৩ জন করে প্রাণ হারিয়েছেন। কলকাতায় ৭৭২ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৪৬ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় নতুন করে সংক্রমণ ধরা পড়েছে ৭৫১ জনের শরীরে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬৭৩ জন রোগী।

এ দিন মৃত্যু বেড়েছে হাওড়াতেও। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৬ জন করোনা রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২৪২ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৫৪ জন রোগী। ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরেও। ৫ জন প্রাণ হারিয়েছেন হুগলিতে। ৪ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে মুর্শিদাবাদে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এ দিন ৩ জন করোনা রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। ২ জন করে রোগী প্রাণ হারিয়েছেন বাঁকুড়া ও দার্জিলিংয়ে। পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব মেদিনীপুর, বীরভূম, মালদহ, দক্ষিণ দিনাজপুর, উত্তর দিনাজপুর, কালিম্পং এবং আলিপুরদুয়ারে প্রাণ ১ জন করে রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন: ক্ষুধাকে অস্ত্র করার বিরুদ্ধে লড়াই, নোবেল শান্তি পুরস্কার বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির​

(জরুরি ঘোষণা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য কয়েকটি বিশেষ হেল্পলাইন চালু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই হেল্পলাইন নম্বরগুলিতে ফোন করলে অ্যাম্বুল্যান্স বা টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত পরিষেবা নিয়ে সহায়তা মিলবে। পাশাপাশি থাকছে একটি সার্বিক হেল্পলাইন নম্বরও।

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২
• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২৯)

Advertisement