×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

মোট আক্রান্ত ৫ লক্ষ ছুঁইছুঁই, ধাপে ধাপে বাড়ছে সুস্থতার হার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা০২ ডিসেম্বর ২০২০ ২২:২৩
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লক্ষ ছুঁতে চলল। গত কয়েক দিন ধরেই দৈনিক সুস্থ এবং দৈনিক আক্রান্তের মধ্যে ব্যবধান কমছিল। বুধবার তা খুব কাছাকাছি চলে এসেছে। তবে তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে এ রাজ্যে সুস্থতার হার রোজই ধাপে ধাপে বাড়তে শুরু করেছে। কিন্তু সাড়ে ৭ শতাংশের বেশি সংক্রমণের হার স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাদের কাছে কাঁটা হয়েই রইল।

স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বুধবারের বুলেটিন অনুযায়ী, রাজ্যে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪২ হাজার ৬২৪টি। এর মধ্যে সক্রিয় করোনা রোগী ধরা পড়েছে ৩ হাজার ২৭১ জন। প্রতি দিন যে সংখ্যক কোভিড টেস্ট করা হয়, তার মধ্যে যত শতাংশের রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাকেই ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার বলা হয়। মঙ্গলবার সংক্রমণের হার ছিল ৭.৬৭ শতাংশ। বুধবারও সেই একই চিত্র।

Advertisement

বুধবারের বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ থেকে সেরে উঠেছেন ৩ হাজার ২৭৫ জন রোগী। এর জেরে রাজ্যে এখনও অবধি সুস্থের সংখ্যাটা আরও বেড়ে হয়েছে মোট ৪ লক্ষ ৫৭ হাজার ৩৭৭। গত কয়েক দিন ধরেই দৈনিক আক্রান্ত এবং দৈনিক সু্স্থের মধ্যে ব্যবধান ক্রমশ কমে আসছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দৈনিক সুস্থের সংখ্যা মাত্র ৪ বেশি। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৪ হাজার ১৬৬ জন যা গত কালের থেকে কম।

বুধবারের বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ থেকে সেরে উঠেছেন ৩ হাজার ২৭৫ জন রোগী। এর জেরে রাজ্যে এখনও অবধি সুস্থের সংখ্যাটা আরও বেড়ে হয়েছে মোট ৪ লক্ষ ৫৭ হাজার ৩৭৭। গত কয়েক দিন ধরেই দৈনিক আক্রান্ত এবং দৈনিক সু্স্থের মধ্যে ব্যবধান ক্রমশ কমে আসছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দৈনিক সুস্থের সংখ্যা মাত্র ৪ বেশি। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৪ হাজার ১৬৬ জন যা গত কালের থেকে কম।

(গ্রাফের উপর হোভার বা টাচ করলে প্রত্যেক দিনের পরিসংখ্যান দেখতে পাবেন।)

আরও পড়ুন: ‘কিছুই মেটেনি’! সৌগতকে কড়া বার্তা শুভেন্দুর, উগরে দিলেন ক্ষোভ

আরও পড়ুন: স্বাস্থ্যবিমা নিয়ে তৃণমূল-বিজেপি তরজা, লকেটের তোপ, পাল্টা জবাব দিলীপের

রাজ্যে সুস্থতার হার রোজই ধাপে ধাপে বাড়ছে। বুধবারও সেই প্রবণতা বজায় রইল। এ দিন সুস্থতার হার পৌঁছেছে ৯৩.৩৩ শতাংশে। গত কাল তা ছিল ৯৩.২৮ শতাংশ।

রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৮ হাজার ৫২৭ জন। এর মধ্যে বুধবার মৃত্যু হয়েছে ৫১ জনের। এ দিন কলকাতা (১২) এবং উত্তর ২৪ পরগনা (১১)—  দুই জেলা মিলিয়ে মোট ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই দুই জেলা বাদ দিয়ে হাওড়ায় ৮, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৫ এবং হুগলিতে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৮ হাজার ৫২৭ জন। এর মধ্যে বুধবার মৃত্যু হয়েছে ৫১ জনের। এ দিন কলকাতা (১২) এবং উত্তর ২৪ পরগনা (১১)— দুই জেলা মিলিয়ে মোট ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই দুই জেলা বাদ দিয়ে হাওড়ায় ৮, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৫ এবং হুগলিতে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার জেলাভিত্তিক সংক্রমণের মানচিত্রে সর্বোচ্চ স্থানে কলকাতা (৮৪১)। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা (৬৯৭)। এ ছাড়া দক্ষিণ ২৪ পরগনা (১৮৮), হুগলি (১৬৮), হাওড়া (১৬৪), নদিয়া (১৫৪), দার্জিলিং (১৩৬), জলপাইগুড়ি (১৩৪), এবং পূর্ব বর্ধমান (১০৮)-এ দৈনিক সংক্রমণ শতাধিক।

বুধবার জেলাভিত্তিক সংক্রমণের মানচিত্রে সর্বোচ্চ স্থানে কলকাতা (৮৪১)। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা (৬৯৭)। এ ছাড়া দক্ষিণ ২৪ পরগনা (১৮৮), হুগলি (১৬৮), হাওড়া (১৬৪), নদিয়া (১৫৪), দার্জিলিং (১৩৬), জলপাইগুড়ি (১৩৪), এবং পূর্ব বর্ধমান (১০৮)-এ দৈনিক সংক্রমণ শতাধিক।

Advertisement