Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ডিএ মামলায় রাজ্য সরকারের আবেদন খারিজ হাইকোর্টে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৭ মার্চ ২০১৯ ১৭:৪৬
কলকাতা হাইকোর্ট।

কলকাতা হাইকোর্ট।

রাজ্য সরকারি কর্মীদের মহার্ঘভাতা (ডিএ) মামলায় রাজ্য সরকারের করা রিভিউ পিটিশন খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। বৃহস্পতিবার বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন এবং শেখর ববি শরাফের ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের আর্জি খারিজ করে দেওয়ায়, রাজ্য প্রশাসনিক ট্রাইবুনাল (স্যাট)-এর সামনে চূড়ান্ত রায় দানে কোনও বাধা রইল না। চলতি মাসেই স্যাট চূড়ান্ত রায় দিতে পারে বলে কর্মী সংগঠনগুলি আশা করছে।

কনফেডারেশন অব স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ-সহ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের একাধিক সংগঠন ২০১৬ সালে কেন্দ্রের হারে ডিএ-র দাবিতে স্যাটে মামলা করে। কিন্তু স্যাট ওই আবেদন খারিজ করে দিলে তারা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। গত বছরের ৩১ অগস্ট ওই মামলায় হাইকোর্ট জানিয়ে দেয় যে, ডিএ রাজ্য সরকারি কর্মীদের অধিকার। কিন্তু কী হারে ডিএ দেওয়া হবে, বছরে তা ক’বার দেওয়া হবে— সে সব স্থির করার ভার স্যাটকেই দেয় হাইকোর্ট। মামলার নিস্পত্তি করতে দু’মাসের সময়সীমাও নির্ধারণ করে দেওয়া হয়।

স্যাটে সেই মামলার শুনানি যখন শেষের দিকে, তখন রাজ্য সরকার ফের হাইকোর্টে রিভিউ পিটিশন ফাইল করে। রাজ্য সরকারের পক্ষে আবেদন করা হয়, ‘ডিএ রাজ্য সরকারি কর্মীদের অধিকার’— এই রায় পুনর্বিবেচনা করা হোক। রাজ্য সরকারের তরফে স্যাটকে জানানো হয়, হাইকোর্টে মামলাটি বিচারাধীন। হাইকোর্ট যত ক্ষণ না রায় দিচ্ছে, তত ক্ষণ যেন স্যাট রায় ঘোষণা না করে। রাজ্য সরকারের ওই রিভিউ পিটিশনের প্রেক্ষিতে স্যাটও রায়দান স্থগিত রাখে।

Advertisement

আরও পড়ুন- আপনার ভারতরত্ন পাওয়া উচিত, বঢরাকে কটাক্ষ বিজেপির​

আরও পড়ুন- ফের প্রকাশ্যে পাকিস্তানের দ্বিচারিতা, জঙ্গি শীর্ষনেতাই এ বার ইমরানের দলে​

এ দিন বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন রাজ্য সরকারের পিটিশন খারিজ করে দিয়ে জানান, মামলার সময়ে রাজ্য সরকার আদালতে তাদের বক্তব্য জানানোর যথেষ্ট সুযোগ পেয়েছে। আর নয়!

হাইকোর্টে এ দিন রাজ্য সরকারের রিভিউ পিটিশন খারিজ হওয়ার পর কনফেডারেশনের তরফে সুবীর সাহা বলেন, ‘‘কলকাতা হাইকোর্ট যে রায় দিল, তাতে সরকারি কর্মীদের অধিকার সুরক্ষিত হল। খুব তাড়াতাড়িই স্যাটের রায় ঘোষিত হবে এবং কর্মীদের দাবিদাওয়া পূরণ হবে বলে আমরা আশা করছি।’’

ডিএ আদায়ের দাবিতে স্যাটে মামলা করেছিল বিজেপির সংগঠন ‘রাজ্য সরকারি কর্মচারী পরিষদ’ও। বৃহস্পতিবার হা‌ইকোর্টের রায় জানার পরে সংগঠনের আহ্বায়ক দেবাশিস শীল বলেছেন, ‘‘এই রায় রাজ্য সরকারি কর্মীদের জয়। স্যাট খুব তাড়াতাড়িই নিজের রায় ঘোষণা করবে বলে আমরা আশা করছি।’’

সিপিএম নিয়ন্ত্রিত কর্মী সংগঠন কো-অর্ডিনেশন কমিটি অবশ্য মনে করছে না যে, এই রায়ে রাজ্য সরকারের কাছ থেকে অধিকার আদায় করা যাবে। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিজয়শঙ্কর সিংহ বলেছেন, ‘‘ডিএ-কে কর্মীদের অধিকার হিসেবে আরও এক বার হাইকোর্ট স্বীকৃতি দিল— এটা ভাল কথা। কিন্তু এটা কোনও নতুন কথা নয়। এই অধিকারকে আইনি স্বীকৃতি বামফ্রন্ট সরকারই দিয়ে গিয়েছিল। আদালতও ফের সে কথাই বলল। কিন্তু এ রাজ্যে বর্তমানে যে সরকার চলছে, তারা আইন-আদালত-সংবিধান কিছুই মানে না। তাই হাইকোর্ট বা স্যাটের রায়ে আমাদের অধিকার আদায় হবে বলে আমরা মনে করছি না। অধিকারটা আদায়ের জন্য আমাদের মাঠে নামতে হবে। কো-অর্ডিনেশন কমিটি বৃহত্তর আন্দোলনের প্রস্তুতিও নিচ্ছে।’’

রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের কর্মী সংগঠন ‘ফেডারেশন’ অবশ্য হাইকোর্টের রায়তে স্বাগত জানিয়েছে। সংগঠনের মেন্টর গ্রুপের আহ্বায়ক মনোজ চক্রবর্তী বলেছেন, ‘‘মহামান্য হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছে, সেটা সবাই মাথা পেতে মেনে নেবেন, এটাই প্রত্যাশিত। হাইকোর্টের রায় অমান্য করার অবকাশ কারওরই নেই। রায় কর্মীদের পক্ষেই গিয়েছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement