×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ মে ২০২১ ই-পেপার

উত্তরাখণ্ডের বিপর্যয় নিয়ে মোদী-শাহকে তোপ কল্যাণের, পোস্তা নিয়ে পাল্টা খোঁচা বিজেপির

নিজস্ব সংবাদদাতা
পাণ্ডুয়া ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০০:৩৫
তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।
ফাইল চিত্র।

উত্তরাখণ্ডের প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে বহু মানুষের মৃত্যু নিয়ে ফের এক বার বিজেপি-কেই কাঠগড়ায় তুললেন শ্রীরামপুরের তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, যে তপোবন বাঁধ ভেঙে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে তার ঠিকাদার এক বিজেপি সাংসদ। গেরুয়াশিবিরের আর্থিক দুর্নীতির ‘মূল্য’ এতগুলি মানুষ তাঁদের প্রাণের বিনিময়ে চুকিয়েছেন বলে বুধবার বোমা ফাটিয়েছেন কল্যাণ। তৃণমূল সাংসদের অভিযোগের পাল্টা জবাব দিয়েছে বিজেপিও।

বুধবার পাণ্ডুয়ায় দলীয় সভায় যোগ দেন কল্যাণ। সেখানে তিনি দাবি করেন, ‘‘উত্তরাখণ্ডে যে বাঁধ ভেঙে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে তা নির্মাণ করছিলেন বিজেপি-র এক সাংসদ।’’ তবে সেই সাংসদের নাম তিনি উল্লেখ করেননি। বিজেপি-র ওই সাংসদ ‘তোলাবাজি’ করেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন কল্যাণ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ওই টাকার ভাগ পেয়েছেন বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, হিমবাহ ফেটে ভয়াবহ জলোচ্ছ্বাসের জেরে উত্তরাখণ্ডের রাজধানী দেহরাদূন থেকে ২৮০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত তপোবন বিষ্ণুগড় জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের একটি বড় অংশ ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতির মুখে পড়ে। তার জেরে মৃত্যু হয় অনেকের। এখনও নিখোঁজ অনেকে। সেই তালিকায় রয়েছেন এ রাজ্যের মানুষও।

Advertisement

কল্যাণের অভিযোগ শোনা মাত্র তাঁকে নিশানা করেছে বিজেপি। দলের রাজ্য কমিটির সদস্য ভাস্কর ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং গোটা তৃণমূল দলই এখন দিশাহীন। তাই ওঁরা এমন উল্টোপাল্টা কথা বলছেন। পোস্তায় সেতু ভেঙে পড়ল। তার জন্য যারা দায়ী তাদের এখনও শাস্তি হল না। তৃণমূল সেটা আগে ভাবুক, তার পর উত্তরাখণ্ড নিয়ে ভাববে।’’

Advertisement