×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

করোনাজয়ী প্রৌঢ় উদ্ধার ধূলাগড়ে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০৩:৩১
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

বাড়ি ফেরার পথে উধাও হয়ে যাওয়া করোনাজয়ী প্রৌঢ়ের খোঁজ মিলল। মঙ্গলবার রাতে তাঁকে ধূলাগড় থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ১৩ দিন হাসপাতালে ভর্তি থাকার কথা মনে করতে পারছেন না ওই প্রৌঢ়। মাঝেমধ্যে অসংলগ্ন কথাও বলছেন বলে জানিয়েছেন পরিজনেরা।

পুলিশ সূত্রের খবর, বালির পদ্মবাবু রোডের সুনীল দাস করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সুস্থ হয়ে মঙ্গলবার মেয়ে মায়ার সঙ্গে বাড়ি ফেরার সময়ে ছ’নম্বর জাতীয় সড়কে আচমকা ট্যাক্সি থেকে নেমে একটি বাসে উঠে তিনি বেপাত্তা হয়ে যান। বার বার মেয়েকে ফোন করে বলতে থাকেন, ‘তোরা আমাকে খুঁজে পেলেই আবার হাসপাতালে ভর্তি করবি!’ ঘটনার পরে সুনীলবাবুর প্রতিবেশীরা জাতীয় সড়কে খোঁজ শুরু করেন। রাত ১১টা নাগাদ এক পড়শি ফোন করেন সুনীলবাবুকে। কান্নায় ভেঙে পড়ে প্রৌঢ় জানান, তিনি রাস্তার ধারে বসে রয়েছেন। কিন্তু জায়গার নাম জানেন না।

রাস্তার ধারের এক চায়ের দোকানিকে ফোন দিলে তাঁর থেকে জানা যায়, ধূলাগড় এলাকায় রয়েছেন সুনীলবাবু। পুলিশও প্রৌঢ়ের মোবাইলের অবস্থান পরীক্ষা করে জানতে পারে, তিনি ধূলাগড় টোল প্লাজার আশপাশেই আছেন। দু’দিক থেকে বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ায় রাতেই প্রৌঢ়ের প্রতিবেশীরা গাড়ি নিয়ে সেখানে যান। স্থানীয় যুবক দীপাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, তাঁরা গিয়ে দেখেন চায়ের দোকানে জড়সড় হয়ে বসে আছেন সুনীলবাবু। খুব ভয় পাচ্ছিলেন, কিছুতেই গাড়িতে উঠতে চাইছিলেন না। মায়া বলেন, ‘‘বাবার মানসিক সমস্যা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। ওঁকে যে ফিরে পেয়েছি এটাই স্বস্তি।’’

Advertisement
Advertisement