Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Kabir Suman: সুমনের ‘কু’ কথা নিয়ে থানায় বিজেপি, দায়ের এফআইআর, অভিযোগ ধর্মীয় সম্প্রীতি নষ্টেরও

আনন্দবাজার অনলাইন যে খবর পরিবেশন করে তার স্ক্রিনশট-সহ একটি টুইট করেন বিজেপি বিধায়ক তথা রাজ্যের সাধারণ সম্পাদক অগ্নিমিত্রা পাল।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ১৯:১৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
অডিয়ো সত্যি হলে সুমনের বিরুদ্ধে ‘ব্যবস্থা’ নেওয়ার কথা বলেন কুণাল ঘোষও।

অডিয়ো সত্যি হলে সুমনের বিরুদ্ধে ‘ব্যবস্থা’ নেওয়ার কথা বলেন কুণাল ঘোষও।
অলংকরণ: শৌভিক দেবনাথ।

Popup Close

কুকথার ভাইরাল অডিয়ো গায়ক কবীর সুমনের দাবি তুলে থানায় অভিযোগ দায়ের করল বিজেপি। শনিবার শিল্পী তথা তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদের বিরুদ্ধে মুচিপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বিজেপি কাউন্সিলর সজল ঘোষ। প্রসঙ্গত, এক সাংবাদিকের সঙ্গে অশ্লীল ভাষায় টেলিফোনে কথা বলার একটি অডিয়ো সম্প্রতি ভাইরাল হয়। আনন্দবাজার অনলাইনে সেই অডিয়োর সত্যতা যাচাই না করলেও সুমন একটি ফেসবুক পোস্টে যা লিখেছেন তাতে তিনি ওই কণ্ঠস্বর নিজের বলেই মেনেছেন। তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ ইতিমধ্যেই ওই ধরণের বক্তব্যের জন্য সুমনের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন। তারই মধ্যে পুলিশের শরণাপন্ন হল বিজেপি।

গেরুয়া শিবিরের দাবি, সুমনের মন্তব্য সাম্প্রদায়িক ও ধর্মীয় সম্প্রীতির পক্ষে ক্ষতিকর। এখানেই শেষ নয়, সজলের অভিযোগ, ধর্ষণের হুমকি এবং হিন্দুদের অপমান করেছেন সুমন। অন্য দিকে, শনিবার সকালে নিজের ফেসবুকে প্রোফাইলে সুমন যে পোস্ট করেছেন তাতে তিনি স্পষ্ট ভাষায় নিজের পক্ষ নিয়ে দরকারে ফের এমন আচরণ করবেন বলে দাবি করেছেন। লিখেছেন, আর সেই লেখা থেকেই পক্ষান্তরে তিনি মেনেই নিয়েছেন যে, ওই পুরুষ কণ্ঠ তাঁরই।

সুমন সম্পর্কে পুলিশের কাছে করা অভিযোগপত্রে বিজেপি দাবি করেছে, সুমন বাঙালি, হিন্দু এবং হিন্দুদের দেবতা রামকে অপমান করেছেন। তিনি ধর্ষণের হুমকি দিয়েছেন। অভিযোগপত্রে তৃণমূলের আর এক প্রাক্তন সাংসদ প্রয়াত তাপস পালের সুমনের তুলনা টেনেছেন। তাপসও প্রকাশ্যে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছিলেন বলে দাবি সজলের। এ নিয়ে তৃণমূলকেও পরোক্ষে কটাক্ষ করেছেন তিনি। এই সমস্ত কারণ দেখিয়ে সুমনের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করার আর্জি জানিয়েছেন সজল। অভিযোগপত্রের সঙ্গে বিতর্কিত অডিয়ো ক্লিপ-ও সজল জমা দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

অবশ্য এখানেই থেমে নেই সুমন-বিতর্ক। সুমনের শনিবারের ফেসবুক পোস্ট উল্লেখ করে আনন্দবাজার অনলাইন যে খবর পরিবেশন করে তার স্ক্রিনশট-সহ একটি টুইট করেন বিজেপি বিধায়ক তথা রাজ্যের সাধারণ সম্পাদক অগ্নিমিত্রা পাল।


বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ প্রমুখের নজরেও আনতে চান অগ্নিমিত্রা। সেই সঙ্গে টুইটে লেখেন, ‘বাংলার মাকে ধর্ষণের মন্তব্য করা সুমনের থেকে রাজ্য সরকারের দেওয়া সমস্ত সম্মান ফিরিয়ে নেওয়া হোক।’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement