Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Body Recovered

বেহালার বাড়ি থেকে উদ্ধার বৃদ্ধার দেহ, পুত্রবধূর সঙ্গে নাতির গোলমাল থামাতে গিয়েই মৃত্যু?

গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ মা পদ্মার সঙ্গে ঝামেলা হয়েছিল ছেলে অভিষেকের। মা-ছেলের ঝগড়া থামানোর চেষ্টা করছিলেন ঠাকুমা। সে সময় মাকে ছেলে মারধর করেন বলে অভিযোগ।

image of dead body

— প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৮:৫০
Share: Save:

বেহালার চণ্ডীতলার একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার এক বৃদ্ধার দেহ। এলাকা থেকে খবর পেয়ে শনিবার বিকেল ৪টে ৩৫ মিনিট নাগাদ চণ্ডীতলায় পৌঁছয় পুলিশ। ৬৯এ নম্বর বাড়িতে ঢুকে দেখে, সেখানে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে বৃদ্ধার দেহ। তাঁর মাথায় রক্ত লেগে রয়েছে। শরীরের কিছু অংশে পচনও ধরেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতার নাম পুষ্পা দাস। বয়স ৯৫ বছর। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, ওই বাড়িতে পুত্রবধূ পদ্মা দাস এবং নাতি অভিষেক দাসের সঙ্গে থাকতেন পুষ্পা। পদ্মার বয়স ৫৭ বছর। অভিষেকের বয়স ৩২।

স্থানীয় সূ্ত্রে জানা গিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ মা পদ্মার সঙ্গে ঝামেলা হয়েছিল ছেলে অভিষেকের। মা-ছেলের ঝগড়া থামানোর চেষ্টা করছিলেন ঠাকুমা। সে সময় মাকে অভিষেক মারধর করেন বলে অভিযোগ। ধাক্কা দেন ঠাকুমা পুষ্পাকে। পড়ে গিয়ে আঘাত পান পুষ্পা। তাতেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে কি না, খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সেই থেকে বাড়ির সব দরজা বন্ধ করে ভিতরে ছিলেন অভিষেক। স্থানীয়দের সূত্রেই জানা গিয়েছে, বারুইপুরের এক মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তাঁর। বৃহস্পতিবার বাড়ির সব দরজা বন্ধ করার পর অভিষেক নিজের অনেকগুলি ওষুধ খেয়ে ফেলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE