×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

বহুতলের নীচে বৃদ্ধার রক্তাক্ত দেহ, অবসাদে আত্মঘাতী, বলছেন পরিজনেরা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৭ জুলাই ২০২০ ১৩:৪৫
তিনি আত্মহত্যা করেছেন, নাকি এই ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে দমদম থানার পুলিশ। (প্রতীকী ছবি)

তিনি আত্মহত্যা করেছেন, নাকি এই ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে দমদম থানার পুলিশ। (প্রতীকী ছবি)

বহুতলের সামনে বৃদ্ধার দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য দমদমে। সোমবার সাতসকালে একটি বহুতলের নীচে ওই রক্তাক্ত বৃদ্ধার দেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ছাদ থেকে পড়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা। তিনি আত্মহত্যা করেছেন, নাকি এই ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে দমদম থানার পুলিশ।

দমদমের এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। মেয়ের বাড়িতে এসেছিলেন বৃদ্ধা আল্পনা দাস। পরিবার সূত্রে দাবি, করোনা আবহে ইদানীং প্রাতর্ভ্রমণে বেরতে পারছিলেন না তিনি। তা নিয়ে অবসাদে ভুগছিলেন। এ দিন সকালে তিনি ছাদে চলে গিয়েছিলেন। তার পরই ওই বৃদ্ধার দেহ বহুতলের নীচে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা।

পুলিশ সূত্রে খবর, বৃদ্ধার বয়স ৬২ বছর। তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন কি না, সে বিষয়ে পরিবারের সঙ্গে কথা বলছেন তদন্তকারীরা।

Advertisement

আরও পড়ুন: হৃদ্‌রোগে মৃত্যু, তবু ভয়ে দূরেই পরিজনেরা

দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে আত্মহত্যা মনে হলেও, সব দিকই খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃদ্ধার জামাইয়ের দাবি, মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। শ্বশুরকে নিয়েও চিন্তায় থাকতেন তিনি। চিকিৎসককে দেখানো হয়েছে। তার পর আজ সকালেই এমন ঘটনা ঘটল।

আরও পড়ুন: আংশিক ‘বন্দি’ রেখে সংক্রমণ হ্রাস দুই এলাকায়

Advertisement