×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

বিভিন্ন থিমের সমাহারে চেনা শহরটাই অচিনপুর

সুনীতা কোলে
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০০:৪১

এ বছরের পুজো শেষ না হতেই শুরু পরের বছরের প্রস্তুতি। সময় তো বেশি নয়। থিম বাছা, শিল্পী নির্বাচন, মানানসই প্রতিমা কাজ কি কম! থিমের চমকে আদায় করে নিতে হবে দর্শকের প্রশংসা, জিতে নিতে হবে পুরস্কারও।

শহরের মাঝে হাজির এক টুকরো সুন্দরবন। সৌজন্যে দক্ষিণের পুজো সঙ্ঘশ্রী। ম্যানগ্রোভ, বাঘ, হরিণ ও অন্য পশুপাখির মডেলে জমজমাট বন্য পরিবেশ। সঙ্গে বনবিবির আদলে প্রতিমা। বাঘ সংরক্ষণের বার্তা দেবে এই মণ্ডপ। দেখানো হবে বাঘ সংক্রান্ত ফুটেজও।

বরাহনগর বাঙালি সঙ্ঘের মূল ফটক থেকে মণ্ডপ, প্রতিমা তৈরি হচ্ছে কৃত্রিম গাছ দিয়ে। গোলাকৃতি মণ্ডপের প্রবেশপথে থাকছে প্রাচীন বাড়ির আদল।

Advertisement

রিজেন্ট পার্ক সর্বজনীনের থিম ‘ছোটা ভীম’। কচিকাঁচাদের মন ভরাতে সদলবলে থাকবে ছোটা ভীম স্বয়ং। মায়ের রূপও চমকপ্রদ। ভীমের বন্ধু ছুটকির মুখই মা দুগ্গার মুখ। কালিয়া পহেলওয়ান থাকছে অসুরের চরিত্রে। সঙ্গে লাইট শো-এ মহিষাসুরমর্দিনী।

৬৪ পল্লির মণ্ডপ সাজছে রঙিন ছাতায়। উদ্যোক্তারা চান, সব ধর্মের মানুষ উৎসবের আনন্দ উপভোগ করুন। ভারতের ইতিহাস মনে রেখে বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের বার্তা দিতেই এই ভাবনা।

অজন্তা-ইলোরার শিল্পকর্মের ছোঁয়া সিঁথি মুন্সীর বাগান সর্বজনীনে। ফাইবার গ্লাস, থার্মোকল, প্লাস্টার অব প্যারিসে অজন্তা-ইলোরার পরিবেশ। অজন্তার বৌদ্ধ ভাস্কর্যের আদলে থাকছে ৭০ ফুটের বুদ্ধমূর্তি। ধাতব রঙে সাজবে প্রতিমা।

শীতলাতলা সঙ্ঘশ্রী ক্লাবের পুজো-ভাবনা ‘শান্তি রূপেণ সংস্থিতা’। পৃথিবীতে যুদ্ধের আবহে শান্তির বাণী দিতে মা অস্ত্রবিহীন। বৌদ্ধমন্দিরের আদলে মণ্ডপ। প্রবেশপথের দু’পাশে মন্ত্র লেখা অসংখ্য পতাকা সৃষ্টি করবে গুম্ফার পরিবেশ।

মানিকতলা বারোয়ারির পুজোয় মায়ের শান্ত, সমাহিত রূপ। নৌকার মডেল ও হালের সজ্জায় সাজবে মণ্ডপ। নৌকার নানা অংশ দিয়ে তৈরি হবে একচালা ঠাকুরের চালচিত্র এবং বেদী। পূর্ব বড়িশা শীতলাতলা কিশোর সঙ্ঘের এ বারের ভাবনা ‘বিশ্বভরা প্রাণ, তাহারই মাঝখানে আমি পেয়েছি মোর স্থান’। ৩৫ ফুট নৌকার আদলে তৈরি মণ্ডপে দেবী থাকছেন সৃষ্টির পরিবেশে। আলো ও ধ্বনির মেলবন্ধনে পূর্ণতা পাবে থিম।

এয়ারপোর্ট সিটি রেসিডেন্টস (ফেজ ওয়ান) আবাসনের পুজোয় এ বারের মণ্ডপ আদ্যাপীঠের মন্দিরের আদলে। পাতিপুকুর বিধানপল্লী নেতাজি সংঙ্ঘের থিম ‘বাংলার কৃষ্টিতে নীলনদের সভ্যতা’। বাংলা ও মিশরীয় শিল্পরীতির মিশ্রণে তৈরি হয়েছে প্রতিমা। দুর্গানগর বাদরা অগ্রগামীর মণ্ডপ মধুবনী শিল্প ও ফলের পেটি দিয়ে। সবুজায়নের বার্তা দেবে বালি জোড়াঅশ্বত্থতলা সর্বজনীনের মণ্ডপ।

শহর জোড়া থিম-যজ্ঞে সকলের আমন্ত্রণ। কিন্তু অন্য পথে হেঁঁটে নাকতলা অরবিন্দ সঙ্ঘের পুজো থিম বর্জিত। কাল্পনিক মন্দিরের আদলে তৈরি মণ্ডপে থাকছে সাবেক প্রতিমা। কল্যাণ কামনায় আয়োজন করা হয়েছে এক যজ্ঞেরও।

Advertisement