×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

মহিলার মাথা থেঁতলানো দেহ উদ্ধার ফুটপাতে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২১ ডিসেম্বর ২০২০ ০১:২৮
জইবুন বিবি।

জইবুন বিবি।

ঝুপড়ির ঘর থেকে উদ্ধার হল এক মাঝবয়সি মহিলার রক্তাক্ত দেহ। তাঁকে খুন করা হয়েছে বলেই পুলিশ জানিয়েছে। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মহাজাতি সদনের উল্টো দিকে, চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউয়ের ফুটপাতে।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার নাম জইবুন বিবি (৫০)। স্থানীয় সূত্রের খবর, মহাজাতি সদনের উল্টো দিকের ফুটপাতে প্লাস্টিকের ছাউনি দিয়ে ঘেরা একটি ঘরে কয়েক বছর ধরে থাকতেন ওই মহিলা। তাঁর দু’টি ছোট গাড়ি রয়েছে। মেছুয়াপট্টিতে ফল নিয়ে যেতে ওই গাড়ি দু’টি ভাড়া খাটে। রবিবার সকাল ১০টা নাগাদ পরিচিত এক যুবক জইবুন বিবিকে ডাকতে এসে দেখেন, প্লাস্টিকের ছাউনির নীচে মেঝেয় তাঁর রক্তাক্ত দেহ পড়ে রয়েছে। মাথা থেঁতলানো। হাতুড়ি জাতীয় ভারী কিছু জিনিস দিয়ে তাঁর মাথায় আঘাত করা হয়েছে বলে পুলিশের অনুমান।

এ দিন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন জোড়াসাঁকো থানার পুলিশ ও লালবাজারের হোমিসাইড শাখার আধিকারিকেরা। পুলিশ কুকুর এনে গোটা এলাকায় তল্লাশি চালানো হয়। যদিও রবিবার রাত পর্যন্ত খুনের ঘটনার কিনারা হয়নি।

Advertisement

মৃতার দুই বিবাহিত মেয়ে ও এক ছেলে হাওড়ার বাঁকড়ায় থাকেন। যে জায়গায় ওই মহিলা খুন হয়েছেন সেখানকার স্থানীয় লোকজন জানান, ওই মহিলা খুব শান্ত স্বভাবের ছিলেন। মৃতার মেয়ে সোনিয়া বেগম বলেন, ‘‘আমার মা গত ১৫ বছর ধরে এখানে থাকছিলেন। মায়ের সঙ্গে কখনও কারও শত্রুতা ছিল না।’’ তদন্তকারীদের অনুমান, যে হেতু তাঁর দু’টি গাড়ি রয়েছে, সেই জন্য ব্যবসায়িক ভাবে জইবুন কিছুটা হলেও প্রতিষ্ঠিত ছিলেন।

এক তদন্তকারী আধিকারিকের কথায়, ‘‘হতে পারে জমানো টাকা হাতাতেই অপরাধীরা ওই মহিলাকে খুন করেছে।’’ মৃতার কাছে একটি মোবাইল ছিল। ঘটনার পর থেকে সেটির খোঁজ মিলছে না বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা। লালবাজারের এক কর্তা বলেন, ‘‘ঘটনার তদন্ত চলছে। সব দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

Advertisement