Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪

ভাঙল উড়ালপুলের হাইট-বার

তিন বছর আগে ২০১৩ সালে ৩ মার্চ খালে ভেঙে পড়েছিল উল্টোডাঙা উড়ালপুলের একাংশ। দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা কেএমডিএ তখন জানিয়েছিল, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ হবে সেতুগুলির। তা আদতে কতটা হয়, চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে সোমবার দুপুরে ফের ভেঙে পড়ল ওই উড়ালপুলেরই বাইপাসের প্রবেশমুখের ‘হাইট বার’। সম্প্রতি পোস্তায় বিবেকানন্দ উড়ালপুল বিপর্যয়ের নেপথ্যেও উঠে এসেছে রক্ষণাবেক্ষণের ত্রুটির কথাই।

এ ভাবেই ভেঙে পড়ে হাইট বার। সোমবার। — নিজস্ব চিত্র

এ ভাবেই ভেঙে পড়ে হাইট বার। সোমবার। — নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ১০ মে ২০১৬ ০১:১৬
Share: Save:

তিন বছর আগে ২০১৩ সালে ৩ মার্চ খালে ভেঙে পড়েছিল উল্টোডাঙা উড়ালপুলের একাংশ। দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা কেএমডিএ তখন জানিয়েছিল, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ হবে সেতুগুলির। তা আদতে কতটা হয়, চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে সোমবার দুপুরে ফের ভেঙে পড়ল ওই উড়ালপুলেরই বাইপাসের প্রবেশমুখের ‘হাইট বার’। সম্প্রতি পোস্তায় বিবেকানন্দ উড়ালপুল বিপর্যয়ের নেপথ্যেও উঠে এসেছে রক্ষণাবেক্ষণের ত্রুটির কথাই। এ দিন অবশ্য হাইট বার ভেঙে পড়ার সময়ে ভাগ্যক্রমে তার নীচে কোনও গাড়ি ছিল না।

সেতুতে উঁচু, ভারী গাড়ি ওঠা আটকাতেই হাইট বার দেওয়া থাকে। পুলিশ জানায়, এ দিন দুপুরে আচমকা বিকট শব্দে সকলে ছুটে আসেন। দাঁড়িয়ে প়ড়ে গা়ড়ি। পুলিশের অনুমান, কোনও গাড়িতে ঘষে গিয়েই ভেঙে পড়ে কাঠামোটি। ওই সময়ে নীচে কোনও গাড়ি থাকলে বড় বিপদের আশঙ্কা ছিল বলে মনে করছেন অনেকেই।

পুলিশের বক্তব্য, উপর থেকে বারটিতে রং করা থাকলেও ভিতর থেকে ক্ষয়ে গিয়েছিল। তাই মাঝখান থেকে ভেঙে যাওয়ায় ধার থেকে বারটি উপড়ে আসে। ঘটনার জেরে এ দিন লেকটাউনমুখী যান চলাচলে কিছুটা সমস্যাও হয়। পরে বাঁশের কাঠামো দিয়ে ভেঙে পড়া অংশটিকে তুলে ফেলা হয়।

কেএমডিএ কর্তাদের দাবি, সেতুর ওই অংশ তাঁরা মেরামতির জন্য চিহ্নিত করেছিলেন। ভোটপর্ব মিটলে তা সারাই করে দেওয়া হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE