Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

উন্নয়নে ২৫ কোটি, প্রশ্ন তুলছেন বিরোধীরা

বালির উন্নয়নের জন্য তড়িঘড়ি ২৫ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণা করল হাওড়া পুরসভা। বিরোধীদের অভিযোগ, ভোটের কথা মাথায় রেখেই এই উদ্যোগ। যদিও তা উড়িয়

নিজস্ব সংবাদদাতা
০৪ অগস্ট ২০১৫ ০২:৩৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

বালির উন্নয়নের জন্য তড়িঘড়ি ২৫ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণা করল হাওড়া পুরসভা। বিরোধীদের অভিযোগ, ভোটের কথা মাথায় রেখেই এই উদ্যোগ। যদিও তা উড়িয়ে হাওড়ার মেয়র রথীন চক্রবর্তীর দাবি, মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নপূরণ করতেই বালির উন্নয়নে এই পরিকল্পনা। কারণ, ৩৪ বছরে বাম সরকার কিছুই করেনি।

হাওড়ার সঙ্গে বালি পুরসভার সংযুক্তিকরণের পরেই সরকারের নির্দেশে বালির অনুন্নয়নের দিকগুলি খতিয়ে দেখতে পুর-প্রশাসক হিসেবে হাওড়ার পুর কমিশনার নীলাঞ্জন চট্টোপাধ্যায়কে দায়িত্ব দেন মেয়র। গত কয়েক দিন ধরে এলাকায় ঘুরে মেয়রকে সবিস্তার রিপোর্টও দেন নীলাঞ্জনবাবু। এর মধ্যেই উন্নয়নের প্রশ্নে এলাকায় ‘ঘোরা’ নিয়ে গত শনিবার বালির তৃণমূল বিধায়ক সুলতান সিংহের সঙ্গে ফোনে ‘বাদানুবাদ’ হয় তাঁর। পরে ‘ভুল বোঝাবুঝি’ হয়েছে বলে দু’পক্ষই বিষয়টা মিটিয়ে নেন।

এর পরেই সোমবার হাওড়া পুরসভায় সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে মেয়র রথীন চক্রবর্তী টাকা বরাদ্দের কথা জানান। তিনি বলেন, ‘‘বালির রাস্তার অবস্থা খুব খারাপ। দু’ধাপে প্রায় সাড়ে ১৩ কোটি টাকা খরচ করে ৯২টি রাস্তা সারাই হবে। ২৫টি রাস্তায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে লাগানো হবে আলো। সেই সঙ্গে বালিতে ৪১টি পার্ক ও উদ্যানও তৈরি হবে।’’ মেয়রের অভিযোগ, বালির নিকাশি ব্যবস্থারও বেহাল দশা। তা নিয়ে দ্রুত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

Advertisement

বালির নির্বাচনকে চোখ রেখেই কি অর্থ বরাদ্দ? মেয়র বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী চান হাওড়ার মতো বালিরও উন্নয়ন হোক। তাই দুই পুরসভার সংযুক্তিকরণ করেছেন তিনি। তাঁর স্বপ্নকে সার্থক রূপ দিতেই এই উদ্যোগ।’’ তবে বালির প্রাক্তন চেয়ারম্যান সিপিএম-এর অরুণাভ লাহিড়ী বলেন, ‘‘এটা ভোটের চমক মাত্র। ২৫ কোটি টাকা কোথায় কী ভাবে অনুমোদিত হয়ে বরাদ্দ হল, তার হিসেব ও কাজের তালিকা আগে প্রকাশ হোক। তার পরে বলা যাবে, বালিতে আগে কাজ হয়েছিল না হয়নি।’’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement