×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৯ মে ২০২১ ই-পেপার

৩ কৃষি আইনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হবে কৃষকদের, মাটি উৎসবে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদাদাতা
বর্ধমান ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৩:২৯
মাটি উৎসবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মাটি উৎসবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
—নিজস্ব চিত্র

মাটি উৎসবে বক্তব্য পেশ করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উৎসেব মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘বর্ধমান সবুজ বিপ্লব করেছে। এটা রাজ্যের শস্যের গোলা। এখানকার কৃষকরা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে শস্য ফলান। কিন্তু তিনটি কৃষক আইন হলে আপনাদের সেই শস্য কেড়ে নিয়ে চলে যাবে।’’

মাটি উৎসবের সূচনার মঞ্চ থেকেই বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা উপভোক্তাদের হাতে তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। স্বাস্থ্যসাথী, কৃষকবন্ধুর মতো প্রকল্পের সুবিধা প্রতীকী হিসেবে কয়েক জনকে মঞ্চ থেকেই এই সুবিধা তুলে দেন মমতা।

মাটি উৎসবের মঞ্চ থেকেই বিজেপিকে-ও নিশানা করেছেন মমতা। তিনি বলেন, ‘‘বিজেপি দাঙ্গাকারী দল। মানুষে-মানুষে, ধর্মে ধর্মে বিবাদ তৈরি করে। কিন্তু আমরা উন্নয়ন করি। আমরা মানুষের জন্য় কাজ করি।’’

Advertisement

মমতার বক্তব্য:
১.৪২:
যাঁরা ট্যাব পায়নি, তাঁদের টাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দিয়ে দেওয়া হবে। অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই টাকা পেয়ে যাবে তোমরা। আর সবুজ সাথীর সাইকেলও রাখা আছে। সেগুলোও দিয়ে দেওয়া হবে। আর রেখে দেওয়া যাবে না।

১.৪০: বিনা পয়সায় চিকিৎসা, বিনা পয়সায় খাদ্য। রেশনে জুন মাস পর্যন্ত যে বিনামূল্যে খাদ্যশস্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। সেটা কিন্তু তার পরেও চলবে। এটা আমাদের সিদ্ধান্ত।

১.৩৫: দুয়ারে সরকার কর্মসূচি চলছে। কিন্তু মনে রাখবেন, এখনই আবেদন করলেই সঙ্গে সঙ্গে হয়তো দেওয়া সম্ভব হবে না। কারণ কয়েক দিনের মধ্যেই নির্বাচন ঘোষণা হবে। স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড যেন সব কৃষক পান, সেটা প্রশাসন এবং স্থানীয় নেতাদের দেখতে বলে যাচ্ছি।
১.৩০: তিনটি কৃষি আইনের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হবে কৃষকদের। আপনাদের সব কিছু কেড়ে নেবে। কিছুই পাবেন না। আলুসেদ্ধ ভাতও খেতে পাবেন না।

১.২৫: ইতিমধ্যেই কৃষকবন্ধু প্রকল্পে ৫৫ লক্ষ কৃষক অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতেও অনেকে আবেদন করতে গিয়ে সমস্য়া হচ্ছিল। কিন্তু সেটাও আমরা সরলিকরণ করে দিয়েছি। হয়তো মিউটেশন নেই, সেটা পরে করে নিলেও হবে।


Advertisement