Advertisement
২৫ এপ্রিল ২০২৪
Political Clash

রাজনৈতিক তরজা অবৈধ বাড়ি ভাঙার নোটিস ঘিরে

অভিযোগ, বেআইনি ভাবে তেতলা তোলা হয়েছে। ঘটনাচক্রে, ওই বাড়ির একতলায় বারাসত লোকসভা কেন্দ্রের জন্য অস্থায়ী দফতর খুলেছে বিজেপি। ফলে নোটিস ঘিরে বিজেপি ও তৃণমূলে তরজা শুরু হয়েছে।

—প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৬:৪৬
Share: Save:

সল্টলেকের এফডি ব্লকের একটি বাড়িকে পুর আইনে ভাঙার নোটিস পাঠিয়েছে বিধাননগর পুরসভা। অভিযোগ, বেআইনি ভাবে তেতলা তোলা হয়েছে। ঘটনাচক্রে, ওই বাড়ির একতলায় বারাসত লোকসভা কেন্দ্রের জন্য অস্থায়ী দফতর খুলেছে বিজেপি। ফলে নোটিস ঘিরে বিজেপি ও তৃণমূলে তরজা শুরু হয়েছে। পুরসভার দাবি, এখন তদন্তে ত্রুটি পেলেই নোটিস যাচ্ছে।

সল্টলেকের এফডি-১৮০ নম্বর বাড়িতে সোমবার নোটিস দিয়ে বিধাননগর পুরসভা জানিয়েছে, বেআইনি অংশ ভাঙতে হবে। আর মঙ্গলবার বারাসত লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির দলীয় প্রার্থী স্বপন মজুমদার ওই কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন এবং নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠক করেন। বিজেপির দাবি, ওই নোটিস রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

বিধাননগর পুরসভা জানাচ্ছে, তিন কাঠা জমিতে দোতলার বেশি নির্মাণ করা যায় না। ওই বাড়িতে সেই নিয়ম ভেঙে তেতলা হয়েছে বলেই দাবি পুরসভার মেয়র পারিষদ তথা স্থানীয় পুর প্রতিনিধি বাণীব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তিনি বলেন, ‘‘কে কোন বাড়ি ভাড়া নিলেন, কিংবা কোন রাজনৈতিক দল কার্যালয় খুলল— সেটা কথা নয়। গার্ডেনরিচের পরে বেআইনি নির্মাণ ঠেকাতে অভিযান চলছে। এফডি-১৮০ নম্বর বাড়িতে বেআইনি নির্মাণ ধরা পড়েছে। তাই নোটিস দেওয়া হয়েছে।’’ উল্লেখ্য, গার্ডেনরিচের পরে বিধাননগরে বরোভিত্তিক পর্যবেক্ষক দল এলাকায় ঘুরে বেআইনি বাড়ির খোঁজ নিচ্ছে। পুরসভার দাবি, ওই বাড়িতে গেস্ট হাউসও রয়েছে। যার অনুমতি নেই।

বিজেপির বারাসত লোকসভা কেন্দ্রের যুগ্ম আহ্বায়ক অনুপম ঘোষ বলেন, ‘‘আমরা ভাড়া নিয়েছি। বেআইনির কথা ভাড়াটে কী ভাবে জানবে? এটা রাজনৈতিক হেনস্থা ছাড়া আর কিছু নয়।’’ একই বক্তব্য বাড়ির বাসিন্দাদেরও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE