×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

খন, মুখা দিয়ে তৈরি লোকসভা ভোটে দক্ষিণ দিনাজপুরের ম্যাসকট নাগরিক

নিজস্ব সংবাদদাতা
১৯ মার্চ ২০১৯ ০৭:১৭
ম্যাসকটে মুখা। নিজস্ব চিত্র

ম্যাসকটে মুখা। নিজস্ব চিত্র

ভোটারদের আরও বেশি করে বুথমুখী করতে পদক্ষেপ করল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন। সোমবার আনুষ্ঠানিক ভাবে একটি ম্যাসকট প্রকাশ করে তারা।

কুশমণ্ডির মুখোশ ‘মুখা’কে ব্যবহার করে একটি ম্যাসকট করা হয়েছে। যার পোশাকি নাম ‘নাগরিক’। ‘মুখা’কে অ্যানিমেনশনের মাধ্যমে চরিত্রায়ণ করা হয়েছে। সেই ‘মুখা’র আবেদন, ‘আপনার ভোট। আপনার অধিকার। দেশ গড়ার অঙ্গীকার।’ এ প্রসঙ্গে জেলাশাসক দীপাপ প্রিয়া পি জানান, এক দিকে জেলার ঐতিহ্যকে আরও জনপ্রিয় করা। তা ব্যবহার করেই ভোটারদের আকর্ষণ বাড়ানো। সেই উদ্দেশেই এই ম্যাসকট।

ভোটার তালিকায় নাম তোলার ক্ষেত্রে ‘মুখা’ এবং ‘খন-পালা’কে কাজে লাগিয়েছিল জেলা প্রশাসন। মুখা অর্থাৎ মুখোশ পরে শিল্পীরা অনুষ্ঠান করেন। আর ‘খন-পালা’তে রয়েছে সংলাপ এবং গান। লোকশিল্পের এই দুই ধারাই দক্ষিণ দিনাজপুরের পরিচয়। সেই দুই সাংস্কৃতিক পরিচয়ই ভোটের সময় কমিশন তুলে ধরতে চেয়েছে। তাতে এলাকার মানুষ যেমন খুশি হবেন, তেমন এই দুই শিল্প আঙ্গিকের প্রচারও হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Advertisement

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

জানুয়ারি মাসে পূর্ণাঙ্গ ভোটার তালিকা প্রকাশের আগে ১৮-১৯ বছর বয়সী ভোটারের সংখ্যা ছিল ১৭ হাজার। আর জানুয়ারিতে প্রকাশিত তালিকায় সংযোজিত হয়েছে ৪০ হাজার।

এ প্রসঙ্গে দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারী মহাদ্যুতি অধিকারী জানান, নবীন ভোটারদের কাছে পৌঁছতে জেলার ঐতিহ্যকে ব্যবহার করা হয়েছে। সেই ‘মুখা’ বলছে ভোট গণতান্ত্রিক অধিকার। তা প্রয়োগ করুন। ইতিমধ্যেই ‘গুটিপিসি’কে ম্যাসকট করেছে জেলা প্রশাসন।

Advertisement