×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

২০টি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাকে বিনিয়োগের অনুমোদন রাজ্যের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা০২ ডিসেম্বর ২০২০ ১০:১৩
রাজ্যে বিপুল কর্মসংস্থানের পূর্বাভাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র।

রাজ্যে বিপুল কর্মসংস্থানের পূর্বাভাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র।

বিধানসভার ভোটের মুখে দাঁড়িয়ে রাজ্যে বিপুল কর্মসংস্থানের পূর্বাভাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তথ্যপ্রযুক্তি শিল্প থেকে কুটির শিল্প সবেতেই আশার বাণী শোনালেন মমতা।

মঙ্গলবার রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘‘কর্মসংস্থানের জন্য আজ ২০টি তথ্য প্রযুক্তি সংস্থাকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর ফলে কয়েক হাজার ছেলেমেয়ের কর্মসংস্থান হবে।’’

আমেরিকার সিলিকন ভ্যালির মতো তথ্যপ্রযুক্তি হাব কলকাতার নিউটাউনে তৈরির পরিকল্পনা করেছিল নবান্ন। সেই মতো গত বছর ২০টি সংস্থাকে নিউটাউনে ১০০ একর জমিও দেওয়া হয়। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, ‘‘কর্মসংস্থানের জন্য গত বছর যে ১০০ একর জমি দেওয়া হয়েছিল, তা পূরণ হয়ে গিয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলো আরও ১০০ একর জমির দাবি করেছে। তাদেরকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’’ ইনফোসিসকে যে শর্তে জমি দেওয়া হয়েছে, সেই একই শর্তে রাজ্য সরকারের কাছে আইটি সেক্টর তৈরির জন্য জমি চেয়েছিল উইপ্রো। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, উইপ্রোকেও জমি দেওয়া হবে। এ ছাড়া জলপাইগুড়িতে একটি সিমেন্ট কারখানাকে জমি দেওয়া হবে বলে জানান মমতা।

আরও পড়ুন: নিজের কেন্দ্রেই বিজেপি কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে লকেট চট্টোপাধ্যায়

আরও পড়ুন: কৃষকদের জন্য আমরা যা করেছি কেউ করেনি: মোদীকে ‘পাল্টা’ মমতার

Advertisement

শুধুমাত্র তথ্যপ্রযুক্তি শিল্প নয়, কুটির শিল্পের ক্ষেত্রেও প্রচুর কর্মসংস্থানের সুযোগের কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির পাশাপাশি একাধিক মেলার আয়োজন করবে রাজ্য সরকার। সে মেলা থেকেও প্রচুর কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে বলে মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাস। তাঁর কথায়, ‘‘রাজ্য জুড়ে ৬১৭ টি মেলা, প্রদর্শনী, এক্সপো আয়োজন করবে সরকার। এই মেলায় ১৫৬ কোটি টাকার মতো কেনাবেচা হবে। এর ফলে ৩.৬৪ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে।’’



গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

বিজেপির দাবি, এর আগে লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা খরচ করে বিজনেস সামিট করেও রাজ্যে কোনও শিল্প আনতে পারেননি মুখ্যমন্ত্রী। এখন যে কর্মসংস্থানের কথা উনি বলছেন, তা-ও মিথ্যা প্রতিশ্রুতি। প্রসঙ্গত, সোমবার বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য টুইট করে জানিয়েছিলেন, ২০১৯ বিজনেস সামিটের বিজ্ঞাপনে ২,৮৪,২৮৮ কোটির বিনিয়োগ এসেছিল বলে দাবি করেছিল রাজ্য সরকার। অথচ ২০২০-২১ অর্থবর্ষে রাজ্যের মোট বাজেট ব্যয় ২,৫৫,৬৭৭ কোটি টাকার থেকেও কম।
মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী সে সব প্রসঙ্গ টানেননি। বিজেপি বা অমিত মালব্যের নাম নেননি। কিন্তু আগামী কয়েক মাসের মধ্যে যে পরিমাণ বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানের আশ্বাস তিনি দিয়েছেন, তাতেই বিজেপি-র আক্রমণের জবাব রয়েছে, বলছে রাজনৈতিক শিবিরের একাংশ।

Advertisement