×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

ফুরফুরা রাজনীতি: কংগ্রেসের জোট প্রস্তাবে একগুচ্ছ শর্ত আব্বাসের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১০ জানুয়ারি ২০২১ ২১:২৩
আবদুল মান্নান ও আব্বাস সিদ্দিকি। —ফাইল চিত্র

আবদুল মান্নান ও আব্বাস সিদ্দিকি। —ফাইল চিত্র

কংগ্রেসের সঙ্গে জোট প্রস্তাবে একগুচ্ছ শর্ত দিলেন ভাইজান আব্বাস সিদ্দিকি। আর সেই শর্তাবলি এআইসিসিকে জানিয়ে দিলেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা আব্দুল মান্নান। শুক্রবার সন্ধ্যায় আব্বাসের সঙ্গে সাক্ষাত্ করতে যান বিরোধী দলনেতা। সেখানেই দীর্ঘক্ষণ বৈঠক হয় তাঁদের। সেই শর্ত প্রকাশ্যে আনতে নারাজ দু’পক্ষই। তবে বৈঠক প্রসঙ্গে মান্নান বলেন, ‘‘আমি ওঁর কথা সবটাই শুনেছি। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ও এআইসিসি নেতৃত্বকে তা জানিয়ে দিয়েছি।’’

গত কয়েক মাস আগে নতুন রাজনৈতিক দল তৈরির ঘোষণা করে একুশের ভোটকে জমিয়ে দিয়েছেন আব্বাস। ইতিমধ্যে আব্বাস ঘোষণা করে দিয়েছেন, আগামী ২১ জানুয়ারি ১০টি দলের ফ্রন্ট ঘোষণা করবেন। এমন ঘোষণার পাশাপাশি বিরোধী বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে জোট নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। দিন দশেক আগেই ফুরফুরা শরিফে এসে আব্বাসের সঙ্গে জোট চূড়ান্ত করে গিয়েছেন অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। বৈঠকের পরে তিনি ঘোষণা করে গিয়েছেন, বাংলায় আব্বাসের সঙ্গে তাল মিলিয়েই পথ চলবে তাঁর দল।

১০ দলের ফ্রন্ট গড়ার হুঙ্কার দিয়েই বসে নেই আব্বাস। বামফ্রন্টের শরিক দলগুলির পাশাপাশি রাজ্য কংগ্রেসের নেতাদের সঙ্গেও বেশ কয়েকবার কথা হয়েছে তাঁর। সম্প্রতি প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী ফুরফুরা শরিফে গিয়ে আব্বাসের সঙ্গে বৈঠক করে আসেন। সূত্রের খবর, অধীরের সঙ্গে বৈঠকে শর্ত প্রসঙ্গে কিছুই জানাননি তিনি। তাই পরে মান্নান সাহেবকে ফোন করে ফুরফুরায় আসতে অনুরোধ করেন আব্বাস। সেই আমন্ত্রণ পেয়েই ফুরফুরায় যান চাঁপদানির প্রবীণ কংগ্রেস বিধায়ক। তাঁকে শর্তের বিষয়ে বিস্তারিত জানান ফুরফুরা শরিফের এই পীরজাদা। সেই শর্তাবলি এ বার এআইসিসির টেবিল পর্যন্ত পৌঁছে দিয়েছেন তিনি।

Advertisement

আরও পড়ুন: ফলোয়ার সংখ্যায় টুইটারে সক্রিয় রাজনীতিকদের শীর্ষে নরেন্দ্র মোদী

আরও পড়ুন: শোভন-বৈশাখীর ‘প্রায়শ্চিত্ত’ মিছিল সোমবার, আলাদা মিছিল সেই রাকেশেরও

পশ্চিমবঙ্গের ভোট নিয়ে এআইসিসি ইতিমধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ করেছে। বামেদের সঙ্গে জোট চূড়ান্ত করা থেকে শুরু করে আসন রফার করতে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে কংগ্রেস হাইকমান্ড। তাই মনে করা হচ্ছে, আব্বাসকে নিয়েও দ্রুতই সিদ্ধান্ত নেবে এআইসিসি নেতৃত্ব। কারণ পশ্চিমবঙ্গের ভোট ক্রমশ দুই শিবিরের মধ্যে বিভাজিত হয়ে যাচ্ছে। তৃণমূল-বিজেপির যুদ্ধে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে বাম-কংগ্রেস জোট। নির্বাচনী দিনক্ষণ এগিয়ে এলেও জোট নিয়ে দু’পক্ষের আলোচনাই এখন সে ভাবে এগোয়নি। তাই পশ্চিমবঙ্গের ভোটের জন্য তিনজন কংগ্রেস শীর্ষ নেতাকে কলকাতায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে এআইসিসি।

Advertisement