Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৫ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কাঁকসা থেকে ঘাটাল, জল-যন্ত্রণা কাটছে না জেলায় জেলায়

পশ্চিম বর্ধমান জেলার মতোই জল-যন্ত্রণায় জেরবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার একাধিক জায়গা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ৩১ জুলাই ২০২১ ২১:৪২
Save
Something isn't right! Please refresh.
জলের তলায় ঘাটাল।

জলের তলায় ঘাটাল।
—নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

দুর্গাপুর ব্যারেজ থেকে ছাড়া জলে কাঁকসার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। জল ঢুকতে শুরু করেছে নদী তীরবর্তী আবাসনগুলিতে। পশ্চিম বর্ধমান জেলার মতোই জল-যন্ত্রণায় জেরবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল এবং মেদিনীপুর মহকুমার বাসিন্দারা। ব্যারেজের ছাড়া জলে ঘাটালের নদীগুলিতে জলস্তর বাড়ছে। একই অবস্থা ওই মহকুমার চন্দ্রকোনাতেও। একাধিক জায়গায় নদীবাঁধ ভেঙে প্লাবিত গ্রামগুলিতে জলবন্দি বহু মানুষ। অন্য দিকে, দারকেশ্বর নদের বাঁধ ভেঙে হুগলিতে ক্ষতিগ্রস্ত তিনটি অঞ্চলের প্রায় ২০টি গ্রামের বাসিন্দারা।

প্রশাসন সূত্রে খবর, গত দু’দিন ধরে টানা বৃষ্টির জেরে শনিবার সকাল থেকে দুর্গাপুরের দামোদর ব্যারেজ থেকে প্রায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার কিউসেক জল ছাড়া হয়। এর জেরে কাঁকসার বিভিন্ন এলাকা জলমগ্ন হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে এলাকাবাসীকে সরিয়ে স্থানীয় স্কুলগুলিতে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। দামোদরের জল বাড়ায় ওই নদ তীরবর্তী অঞ্চলের কৃষিজমি জলমগ্ন হয়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে এলাকা পরিদর্শনে যান দুর্গাপুরের মহকুমাশাসক শেখরকুমার চৌধুরী এবং কাঁকসার বিডিও সুদীপ্ত ভট্টাচার্য।

Advertisement
জলে ভেসেছে বাঁকুড়ার বহু এলাকা।

জলে ভেসেছে বাঁকুড়ার বহু এলাকা।
—নিজস্ব চিত্র।


শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সার্বিক পরিস্থিতি রাজ্য সরকারের কাছে তুলে ধরেছেন জেলাশাসক রশ্মি কমল। রাজ্য সরকারের ভিডিও কনফারেন্সে তিনি বলেন, ‘‘জেলায় ২১টি ব্লক ও ৭টি পুরসভা এলাকায় মোট ২ লক্ষ ২২ হাজার ২০৪ জন ক্ষতিগ্রস্ত। ১২০টি ত্রাণ শিবিরে ১৭ হাজার ২৯০ জনকে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে।’’ জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, ঘাটাল-চন্দ্রকোনা ৪ নম্বর রাজ্য সড়কে জলমগ্ন হয়েছে। প্রসঙ্গত, এক দিকে ঘাটাল, চন্দ্রকোনা, ক্ষীরপাই হয়ে হুগলির আরামবাগ ও অন্য দিকে চন্দ্রকোনা থেকে ঘাটাল হয়ে দাসপুর, মেছোগ্রাম-সহ কলকাতার সংযোগস্থল এই রাজ্য সড়ক। তবে জলমগ্ন ওই সড়কে দেখা গিয়েছে জাল দিয়ে মাছ ধরার ছবি। ঘাটাল ছাড়াও চন্দ্রকোনা, ভগবন্তপুর, বসনছোড়া, বান্দিপুর, মনোহরপুর, মানিককুণ্ডু এলাকায় বিস্তীর্ণ এলাকা জলের তলায়।

বিপত্তি দেখা দিয়েছে পুরুলিয়া। ওই জেলায় সেতু পারাপার করতে গিয়ে অযোধ্যা পাহাড়ের হড়পা বানে এক প্রৌঢ় তাঁর মোটরবাইক নিয়ে ভেসে যান। ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পরেও নিখোঁজ ইন্দ্রনাথ মাহাতো নামে ৫৭ বছরের ওই ব্যক্তি। রঘুনাথপুর থেকে বিপর্যয় মোকাবিলা ব্যবস্থাপনা দফতরের উদ্ধারকারী দল তাঁর খোঁজ শুরু করেছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement