Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Elephant

রাতভর লোকালয়ে তাণ্ডব চালাল প্রায় ৪০টি হাতি

এলাকাসীদের বক্তব্য, হাতিগুলিকে যদি না তাড়ানো হয়, তা হলে ফের রাত্রে এলাকায় ঢুকবে।

লোকালয়ে হাতির তাণ্ডব। নিজস্ব চিত্র।

লোকালয়ে হাতির তাণ্ডব। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেদিনীপুর শেষ আপডেট: ০৫ জানুয়ারি ২০২১ ১৪:৪০
Share: Save:

বিশাল এক হাতির পালের তাণ্ডবে আতঙ্কে পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়াড়ির খাজরা এলাকা। সোমবার রাতে প্রায় ৪০টি হাতির একটি দল ঢুকে পড়ে লোকালয়ে। ভাঙচুর করে বাড়িঘর, নষ্ট করেছে খেতের ফসল। ভোরে জঙ্গলে ঢুকে গেলেও তারা ফের ফিরে আসতে পারে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী। সতর্ক বন কর্মীরাও।

Advertisement

বেশ কয়েক দিন ধরে পশ্চিম মেদিনীপুরের নছিপুর পঞ্চায়েতের গোপীনাথপুর করঞ্জিমুড়া কোটপুরা-সহ আশপাশের এলাকায় বাড়িঘর ভেঙে ফসল নষ্ট করে তাণ্ডব চালাচ্ছে এক দল হাতি। সোমবার রাতে সম্ভবত সেই হাতির পালটিই খাজরা ২ নম্বর অঞ্চলের শাখাভাঙা গোপালপুর জামশোল এলাকায় ঢুকে পড়ে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রাত ২টো নাগাদ হাতিগুলো খড়্গপুরের দিক থেকে খাজরায় আসে। ঘরবাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি তারা বিদ্যুতের লাইনও ছিঁড়ে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। বাড়িতে বা খামারে থাকা ধান-সহ একাধিক জিনিসপত্র নষ্ট করেছে হাতির পালটি।

বন দফতর সূত্রে খবর, দিনের আলো ফোটার পরে হাতিগুলি কুশগেড়িয়ার জঙ্গলে ঢুকে পড়েছে। এলাকাসীদের বক্তব্য, হাতিগুলিকে যদি না তাড়ানো হয়, তা হলে ফের রাত্রে এলাকায় ঢুকবে।

মঙ্গলবার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে দেখেন খাজরা ২ নম্বর অঞ্চলের প্রধান পথিক সিংহ। ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বন দফতরের তরফে। খড়্গপুর ডিভিশন ডিএফও শিবানন্দ রাম জানিয়েছেন, ৩৫ থেকে ৪০টি দলমার হাতি কলাইকুন্ডা রেঞ্জ হয়ে ঢুকে পড়ে ওই গ্রামগুলিতে। তারা ঘরবাড়ি ভেঙেছে, কিছু ফসলও নষ্ট করেছে। খতিয়ে দেখে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এবং হাতিগুলোকে জঙ্গলে ফেরানোর জন্য অভিযান চালানো হবে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.