Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Leopard: ঝাড়গ্রাম ‘মিনি জু’-র খাঁচা থেকে পালাল চিতাবাঘ, সন্ধানে বন দফতর, শহরে আতঙ্ক

নিজস্ব সংবাদদাতা
ঝাড়গ্রাম ০৭ অক্টোবর ২০২১ ১৯:২০
খাঁচাবন্দি অবস্থায় ঝাড়গ্রামের চিড়িয়াখানার সেই চিতাবাঘ।

খাঁচাবন্দি অবস্থায় ঝাড়গ্রামের চিড়িয়াখানার সেই চিতাবাঘ।
—ফাইল চিত্র।

ঝাড়গ্রাম ‘মিনি জু’ পালিয়ে গেল একটি চিতাবাঘ! বন দফতর এবং পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে চিতাবাঘটিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। খবর ছড়িয়ে পড়তেই ঝাড়গ্রাম এবং আশপাশের বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

অন্ধকারের মধ্যেই ‘মিনি জু’ এবং আশপাশের এলাকায় তল্লাশি শুরু করেছেন বনকর্মীরা। মাইক-প্রচার করে ঝাড়গ্রাম শহরের পাশাপাশি লাগোয়া এলাকার বাসিন্দাদের সতর্ক বার্তা জানিয়েছে প্রশাসন। মাইকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘একটি বিশেষ ঘোষণা, ডিয়ার পার্ক (মিনি জু) খাঁচা থেকে একটি চিতাবাঘ পালিয়ে গিয়েছে। সর্তক থাকুন সাবধানে থাকুন। যদি ওই ধরনের কোনও জন্তু দেখতে পান তাহলে ঝাড়গ্রাম থানায় বা বন দফতরে খবর দিন।’ সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে ঝাড়গ্রাম লাগোয়া পশ্চিম মেদিনীপুরের ধেড়ুয়াতেও।

রাজ্যের প্রধান মুখ্য বনপাল (বন্যপ্রাণ) দেবল রায় আনন্দবাজার অনলাইনকে বলেন, ‘‘ঝাড়গ্রাম ‘মিনি জু’র বাসিন্দা দু’টি চিতাবাঘের মধ্যে একটি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টা নাগাদ খাঁচা থেকে পালিয়ে যায়। এই খাঁচার জালে কিছু মেরামতির কাজ হচ্ছিল। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, মেরামতিতে ত্রুটির কারণে কিছুটা ফাঁক থেকে গিয়েছিল। সেখান থেকেই চিতাবাঘটি পালিয়ে যায়। তার সন্ধানে এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছেন বন দফতরের আধিকারিক এবং কর্মীরা।’’

Advertisement

ঝাড়গ্রামের বিধায়ক তথা রাজ্যের বন প্রতিমন্ত্রী বীর বাহা হাঁসদা বলেন, ‘‘বিষয়টি খোঁজ নিয়ে জেনেছি একটি চিতাবাঘ পালিয়ে গিয়েছে। কী ভাবে পালাল, তা তদন্ত করে দেখা হবে। ওই চিতাবাঘটির সন্ধানে তল্লাশি শুরু হয়েছে।’’

ঝাড়গ্রাম জেলার পুলিশ সুপার বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, ‘‘ডিয়ার পার্ক থেকে একটি চিতাবাঘ পালিয়ে গিয়েছে। তার সন্ধানে তল্লাশি শুরু হয়েছে। মানুষকে সতর্ক ও সাবধান করে মাইকে প্রচার করা হচ্ছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement