×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অসুস্থ রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীর বাড়ি গেলেন তৃণমূল বিধায়ক

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেদিনীপুর ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ১৯:৫৯
প্রেমচাঁদের বাড়িতে প্রদীপ। নিজস্ব চিত্র।

প্রেমচাঁদের বাড়িতে প্রদীপ। নিজস্ব চিত্র।

রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে সৌজন্যের পরিচয় দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী নেতার বাড়িতে গেলেন খড়্গপুরের বিধায়ক প্রদীপ সরকার। নির্বাচনে তাঁর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা বিজেপি নেতা প্রেমচাঁদ ঝার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে শনিবার তাঁর বাড়িতে যান প্রদীপ। তাঁদের মধ্যে দীর্ঘ দিনের পারিবারিক সম্পর্ক। রাজনীতি সেই সম্পর্কে কোনও প্রভাব না ফেলায় খুশি প্রেমচাঁদের পরিবারও।

গত বিধানসভা নির্বাচনে দিলীপ ঘোষ খড়্গপুরে বিধায়ক হওয়ার পর তাঁর ঘনিষ্ঠ প্রেমচাঁদ বিধায়কের প্রতিনিধির দায়িত্ব পান। ২০১৯-এ লোকসভা ভোটে দিলীপ ঘোষ জেতার পর উপনির্বাচন হয় খড়গপুর বিধানসভা কেন্দ্রে। সেখানেই বিজেপি প্রার্থী প্রেমচাঁদ ও তৃণমূলের প্রদীপ মুখোমুখি লড়েন। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর ২১ হাজার ভোট জিতে যান প্রদীপ।

প্রদীপ এবং প্রেমচাঁদের পরিবার বহু বছর ধরে পরস্পরের ঘনিষ্ঠ। গত প্রায় ৬ মাস ধরে অসুস্থ প্রেমচাঁদ। কলকাতায় চিকিৎসার পর সেখানকার বাড়িতেই এত দিন ছিলেন। বৃহস্পতিবার খড়্গপুরের মালঞ্চ এলাকার বাড়িতে ফেরেন প্রেমচাঁদ। খড়্গপুরে ফেরার খবর পেয়েই শনিবার প্রেমচাঁদের সঙ্গে দেখা করতে তাঁর বাড়িতে যান প্রদীপ। ঘণ্টা খানেক সময় কাটান সবার সঙ্গে। প্রেমচাঁদের সুস্থতা কামনা করেন প্রদীপ।

Advertisement

প্রদীপ জানান, “দীর্ঘ দিনের পারিবারিক সম্পর্ক প্রেমচাঁদের সঙ্গে, তাই দেখতে গিয়েছিলাম। এখন অনেকটাই ভাল আছে প্রেমচাঁদ। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সঙ্গে এর কোনও সম্পর্ক নেই।” প্রসঙ্গত, বিধানসভা উপনির্বাচনের সময় বামফ্রন্ট প্রার্থী চিত্ত মণ্ডলের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেছিলেন প্রদীপ।

প্রেমচাঁদের ছেলে সৌরভ অভিষেক ঝা বলেন, “বাবা ৬ মাস ধরে অসুস্থ। কলকাতায় চিকিৎসা চলেছে। বাড়িতে এসেছেন। আজ এলাকার বিধায়ক বাড়িতে এসেছিলেন। তাঁর সঙ্গে দীর্ঘ দিনের পারিবারিক সম্পর্ক। যখন ছোট ছিলাম, তখন প্রদীপকাকু আমাকে খেলার মাঠে নিয়ে যেতেন। এই সৌজন্যে রাজনীতির কোনও জায়গা নেই।”

Advertisement