Advertisement
১৭ জুন ২০২৪

বৃদ্ধাকে গণধর্ষণ, খুনের চেষ্টার অভিযোগ

ওই বৃদ্ধা শনিবার দুপুরে সজনে শাক তুলতে বাড়ি থেকে বার হন। রাস্তায় গাছের তলায় তিনজন মদ্যপান করছিল। অভিযোগ, তাদের মধ্যে বলাই সিংহ নামে একজন ওই বৃদ্ধাকে জোর করে মদ খাওয়ানোর চেষ্টা করে। বৃদ্ধা বাধা দেন। সে সময় খোকন সিংহ এবং অনন্ত সিংহ নামে বাকি দু’জন বৃদ্ধার সঙ্গে জোরাজুরি করে বলে অভিযোগ।

প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
এগরা শেষ আপডেট: ১৩ জুলাই ২০১৮ ০১:৪৯
Share: Save:

এক আদিবাসী বৃদ্ধাকে জোর করে মদ খাইয়ে গণধর্ষণ ও খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল। বৃহস্পতিবার রাতে ওই বৃদ্ধার পরিবার এগরা থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে গভীর রাত পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, এগরা ১ নম্বর ব্লকের ছত্রি গ্রামের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধা শনিবার দুপুরে সজনে শাক তুলতে বাড়ি থেকে বার হন। দোঁবাধি এবং কুঁদি যাওয়ার পাকা রাস্তার ঠিক মাঝখানে রয়েছে ছত্রী গ্রামের ঢোকার মূল রাস্তা। রাস্তার কিছুটা দূরে বট গাছের তলায় তিনজন মদ্যপান করছিল। অভিযোগ, তাদের মধ্যে বলাই সিংহ নামে একজন ওই বৃদ্ধাকে জোর করে মদ খাওয়ানোর চেষ্টা করে। বৃদ্ধা বাধা দেন। সে সময় খোকন সিংহ এবং অনন্ত সিংহ নামে বাকি দু’জন বৃদ্ধার সঙ্গে জোরাজুরি করে বলে অভিযোগ।

পুলিশ জানিয়েছে, এরপর ওই দু’জন মিলে বৃদ্ধাকে ছত্রী গ্রামেই খোকনের বাড়িতে নিয়ে যায়। সঙ্গে যায় বলাইও। খোকনের বাড়িতে গিয়েই শুরু হয় মারধর। বৃদ্ধার চোখ মুখ দিয়ে রক্তপাত শুরু হয়। ওই পরিস্থিতিতেই তিনজন ওই বৃদ্ধাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। বৃদ্ধার গোঙানি শুনে ঘটনাস্থলে পৌঁছন স্থানীয়েরা। ততক্ষণে অবশ্য চম্পট দিয়েছে অভিযুক্তেরা। বৃদ্ধাকে প্রথমে এগরা সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। বুধবার তাঁকে মেদিনীপুর মেডিক্যালে স্থানান্তরিত করানো হয়।

দোষীদের গ্রেফতারের এবং মদ বিক্রির বন্ধের প্রতিবাদে বুধবার বিকেলেই এগরা থানা চত্বরে বিক্ষোভ দেখান এসইউসি-র মহিলা সংগঠনের কর্মীরা। পুলিশ জানিয়েছে, গণধর্ষণের অভিযোগ হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Egra Tribal Gangrape
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE